Featured Video Play Iconজেলা 

স্বাধীনতা সংগ্রামী বীর যোদ্ধা মীর নিসার আলী তিতুমীর ইতিহাসে উপেক্ষিত, দেশের বা রাজ্যের কোন সরকারই এই স্বাধীনতা যোদ্ধাকে যথাযথ মর্যাদা দেয়নি : পীরজাদা নওশাদ সিদ্দিকী

শেয়ার করুন

বিশেষ প্রতিনিধি : আমাদের দেশে কৃষক বিদ্রোহের সূচনা যার নেতৃত্বে হয়েছিল, যিনি জমিদার ও বৃটিশদের বুকে ভয়ের কাঁপন তুলে দিয়েছিলেন, সেই বীর নায়ক হাফেজ মীর নিসার আলি তিতুমীর আজ ইতিহাসের পাতায় উপেক্ষিত। তৃণমূল কংগ্রেস সরকার এতটাই অপদার্থ যে তাঁর নামে মেট্রো স্টেশনের প্রস্তাবও খারিজ করে দিয়েছে। অথচ এই রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী যখন রেলমন্ত্রী ছিলেন, তখন অনেক বিপ্লবী, দেশনায়কের নামে স্টেশনের নামকরণ করেছিলেন। গতকাল ১৯ শে নভেম্বর উত্তর ২৪ পরগণার বসিরহাটে এক জনসভায় ইন্ডিয়ান সেকুলার ফ্রন্টের চেয়ারম্যান ও বিধায়ক  নওশাদ সিদ্দিকী এই কথা জানিয়ে মন্তব্য করেন যে মনুবাদী চিন্তাধারার বাহক হলে এইরকম কুকাজ করা যায়।

শুধু তাঁকে উপেক্ষা করা হচ্ছে তাই নয়, পশ্চিমবাংলায় শিশুদের পাঠ্যসূচিতে তাঁকে সন্ত্রাসবাদী হিসেবে চিহ্নিত করা হচ্ছে। যেভাবে বিজেপি উত্তর প্রদেশ সহ অন্যত্র ইতিহাসকে পালটে দিতে চাইছে, তৃণমূল কংগ্রেসও সেই পথেই চলেছে। নওশাদ সিদ্দিকী বলেন, এই সময়ে দাঁড়িয়ে আমাদের তিতুমীরকে বেশি করে স্মরণ করা প্রয়োজন। আমাদের রাজ্য থেকে দলে দলে মানুষ কৃষিকাজ ছেড়ে পরিযায়ী শ্রমিক হিসেবে ভিনরাজ্যে চলে যাচ্ছে। তারা অসংগঠিত দাসশ্রমিকে পরিনত হচ্ছে। তাই কৃষকদের মর্যাদা ফেরাতে, তাদের সংগঠিত করতে, তিতুমীরের আত্মত্যাগ, কাজের কথা বেশি করে প্রচারের আলোয় আনতে হবে। তাঁর মতে এটা করতে হবে অর্থনৈতিক, সাংস্কৃতিক ও শিক্ষা ক্ষেত্রে।

Advertisement

আইএসএফ চেয়ারম্যান আরো বলেন, বিজেপি গোটা সংবিধান পালটে দেওয়ার লক্ষ্যে কাজ করে চলেছে। সেই সংবিধানকে বাঁচাতে আমাদের ঐক্যবদ্ধ লড়াই করতে হবে। তার জন্য সাংবিধানিক অধিকারগুলিকে ভালো করে জানতে হবে। তিনি বলেছেন, মানুষের অধিকার লঙ্ঘিত হলে আইএসএফ লড়াই চালাবে। সেইজন্য দেবোত্তর সম্পত্তি বেহাত হলে বা ওয়াকাফ সম্পত্তির তছরূপ হলে আমরা সরব হব।

বসিরহাটের দেভোগ আমতলা মোড়ে তিতুমীরের স্মরণে এক রক্ত অর্পণ শিবির উপলক্ষে আইএসএফ এই সভার আয়োজন করেছিল। শিবিরে ১২১ জন রক্তদান করেছেন। দলের সাধারণ সম্পাদক বিশ্বজিৎ মাইতি, উত্তর ২৪ পরগণা জেলার সভাপতি তাপস ব্যানার্জি, কুতুবউদ্দিন ফতেহি, মুসা কলিমুল্লাহ সহ অন্যান‌্য জেলা নেতৃত্ব সভায় উপস্থিত ছিলেন।

ইন্ডিয়ান সেকুলার ফ্রন্টের নেতা তথা বিধায়ক নওশাদ সিদ্দিকী গতকাল উনিশে নভেম্বর তিতুমীরের জন্ম ভিটায় তার শহীদ দিবস উপলক্ষে যে বক্তব্য রেখেছিলেন তা আমরা বাংলার জনরবে নির্বাচিত অংশ ইউটিউবে আপলোড করা হয়েছে। এই খবরের সঙ্গে সেই লিংক শেয়ার করা হলো আগ্রহীরা বক্তব্যটি শুনতে চাইলে লিংকে ক্লিক করে বক্তব্যটি শুনতে পারেন।

 

 


শেয়ার করুন

সম্পর্কিত নিবন্ধ