জেলা 

হুগলির বেলমুড়ি ইউনিয়ন ইনস্টিটিউশনে মাধ্যমিক পরীক্ষার্থীদের নিয়ে ডাউট ক্লিয়ারিং সেশন : উদ্যোগে স্যান্ডফোর্ড অ্যাকাডেমি

শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

নিজস্ব প্রতিনিধি : ডাক্তারিতে ভর্তি পরীক্ষা ‘নিট’ প্রস্তুতি প্রশিক্ষণ দেওয়ার পাশাপাশি এবার কলকাতার নামী প্রতিষ্ঠান স্যান্ডফোর্ড অ্যাকাডেমি পাশে দাঁড়াল মাধ্যমিক পরীক্ষার্থীদের। রাজ্যব্যাপী মক টেস্ট নেওয়ার পর এবার শুরু হয়েছে ডাউট ক্লিয়ারিং করানোর পালা। সোমবার তারই আয়োজন ছিল হুগলির বেলমুড়ি ইউনিয়ন ইনস্টিটিউশনে। বিশিষ্ট ইংরেজি শিক্ষক রাহুল সেনগুপ্ত এই আয়োজন এর শুভ সূচনা করেন। এরপর সেন্টার আধিকারিকরা, বিশিষ্ট শিক্ষক পার্থ অধিকারী, শুভঙ্কর দাস, সঞ্জীব মুদি ও কর্পোরেট ব্যক্তিত্ব শুভজিৎ মাইতি ছাত্র-ছাত্রীদের হাতে মূল্যায়ন করা খাতা তুলে দেন। বিভিন্ন বিষয়ের অভিজ্ঞ শিক্ষকেরা, বাংলায় জহরলাল নাইয়া, ইংরাজির রাহুল সেনগুপ্ত, ইতিহাসে রুহুল কুদ্দুস, ভূগোলে মিতালী মুখার্জী, ভৌত বিজ্ঞানে পলাশ ঘোষ ও অংকে গৌরাঙ্গ সরখেল ছাত্র-ছাত্রীদের ভুল ত্রুটি সংশোধন ও মাধ্যমিকের নাম্বার পাওয়ার কৌশল নিয়ে আলোচনা করেন।

নাটকের রিহার্সাল যেমন গুরুত্বপূর্ণ হয়, সেই রকম মাধ্যমিক পরীক্ষার আগে ছাত্র-ছাত্রীরা নিজেদেরকে যাচাই করে নেয়ার সুযোগ পায় এই মক টেস্টের মাধ্যমে।

Advertisement

রাজ্যব্যাপী পরীক্ষা নেওয়ার পর এদিন ছিল তার প্রথম ডাউটয়ারিং ক্লাস। বেলমুড়ি ইউনিয়ন উচ্চ বিদ্যালয় ছাত্রছাত্রীদের মধ্যে উৎসাহ ছিল চোখে পড়ার মতো, মাধ্যমিক পরীক্ষার আগে মাধ্যমিক পরীক্ষার মতোই প্রশ্নপত্র পেয়ে এবং পরীক্ষা দিয়ে উত্তর পত্র গুলোকে হাতে পেয়ে তারা যাচাই করে নিতে পারার সুযোগ পায় এই মক টেস্টের মাধ্যমে। এর ফলে ছাত্র-ছাত্রীরা নিজেদের ভুল ত্রুটিগুলি সংশোধন করে নিয়ে মাধ্যমিক পরীক্ষায় বসতে পারে যার ফলে ছাত্র-ছাত্রীদের জন্য সর্বোচ্চ নাম্বার পাওয়া সহজ হয়ে যায়।

নভেম্বর মাসের তৃতীয় সপ্তাহ থেকে রাজ্যের বিভিন্ন বিদ্যালয়গুলিতে মাধ্যমিক পরীক্ষার টেস্ট শুরু হচ্ছে , তার আগেই মক টেস্ট পেপারের উত্তরপত্র পেয়ে ছাত্র-ছাত্রীরা ভুল ত্রুটি গুলোকে সংশোধন করে টেস্টে বসার সুযোগ পাচ্ছে এবং নিজেদের কনফিডেন্স লেভেলটাকে বাড়িয়ে নেয়ার জায়গায় পৌঁছে নিচ্ছে। আজকে মক টেস্টের ডাউট ক্লিয়ারিং ক্লাসের মাধ্যমে, বিশেষ করে একসঙ্গে যখন তাদের সমস্ত বিষয়ের অভিজ্ঞ শিক্ষক-শিক্ষিকাদের দ্বারা ওয়ান ইস্টু ওয়ানে ডাউট ক্লিয়ারিং করে দেয়ার ফলে ছাত্র-ছাত্রীদের সঙ্গে অভিভাবক- অভিভাবিকারা খুবই খুশি। অনুষ্ঠানের শেষে অভিভাবকদের অভিমত নিতে গিয়ে জানা যায় মাধ্যমিক পরীক্ষার আগে এইরকম যত বেশি পরীক্ষা দিতে পারবে ছাত্র-ছাত্রীরা তার ফসল ঘরে তুলতে পারবে। এদিন বেলমুড়ি ইউনিয়ন ইনস্টিটিউশনে চারটি সেন্টারের ছাত্র-ছাত্রীরা উপস্থিত ছিল। মাধ্যমিকে কোন বিষয়ে কত নম্বরের জন্য কতখানি লিখতে হবে সে সম্পর্কে সম্যক ধারণা লাভ করে। এক ছাত্র জানায় ‘সত্যিই আমি মক টেস্ট যদি না দিতাম , আমার টেস্ট পরীক্ষা আশানুরূপ হতো না কারণ লেখার কৌশল আমি আগে আয়ত্ত করিনি এখানে এসে সে বিষয়টা আমার পরিষ্কার হয়ে গেছে।’ এদিন ডাউট ক্লিয়ারিং সেশনে ইংরেজির অভিজ্ঞ শিক্ষক রাহুল সেনগুপ্ত সহ প্রত্যেকেই ছাত্র-ছাত্রীদের জন্য সুন্দর এই আয়োজনের প্রশংসা করেন। উপস্থিত ছিলেন স্যান্ডফোর্ড একাডেমির দুই কর্মকর্তা সাবির হোসেন ও পান্থ মল্লিক।

রাজ্যব্যাপী এই মক টেস্টের অন্যতম উপদেষ্টা গৌরাঙ্গ সরখেল বলেন, আগামী দিনে ছাত্র-ছাত্রীদের মধ্যে মক টেস্টের প্রয়োজনীয়তা বাড়বে কারণ ছাত্র-ছাত্রীদের সঙ্গে অভিভাবকেরাও বেশ বুঝতে পারছেন মাধ্যমিক পরীক্ষায় ভালো ফল আনতে গেলে মক টেস্টের গুরুত্ব কতখানি। দ্বিতীয় মক টেস্ট শুরু হবে আগামী ২৪ শে ডিসেম্বর বলে জানান পান্থ মল্লিক। তিনি আরো বলেন, শুধুমাত্র মাধ্যমিক পরীক্ষার্থীদের জন্য নয়, উচ্চমাধ্যমিকের বিজ্ঞান বিভাগের বিভিন্ন বিষয়ের মক টেস্টের আয়োজন করতে চলেছে কলকাতার স্যান্ডফোর্ড অ্যাকাডেমি। আগত ছাত্র-ছাত্রী অভিভাবক অভিভাবিকা ও শিক্ষক মহাশয়দের ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন স্যান্ডফোর্ড অ্যাকাডেমির অন‍্যতম পরিচালক সাবির হোসেন।


শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সম্পর্কিত নিবন্ধ