কলকাতা 

এসএসকেএম হাসপাতালের মর্গ থেকে উধাও সাজাপ্রাপ্ত বন্দির দেহ

শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

বাংলার জনরব ডেস্ক : এসএসকেএম হাসপাতালের (SSKM Hospital) মর্গ থেকে উধাও সাজাপ্রাপ্ত বন্দির দেহ! পরিবারের অভিযোগ, জেলের মধ্যে পিটিয়ে হত্যা করে অঙ্গ প্রত্যঙ্গ বিক্রি করে দিয়েছে পুলিশই। তাই পরিবারের হাতে না দিয়ে দেহ লোপাট করে দিয়েছে পুলিশ। যদিও ভবানীপুর থানার দাবি, দেহ অন্য় কেউ নিয়ে গিয়ে দাহ করে দিয়েছে। কোনওভাবে দেহ রদবদল হয়ে গিয়েছে। যদিও এ প্রসঙ্গে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ মুখে কুলুপ এঁটেছে।

বাড়িওয়ালা খুনের অভিযোগে জেল খাটছিলেন বাবলু পোল্লে। সপ্তমীর দিন থানা থেকে ফোন করে পরিবারকে জানানো হয়, বাবলু মারা গিয়েছেন। কিন্তু এসএসকেএম হাসপাতালের মর্গে গিয়েও দেহ পায়নি বন্দির স্ত্রী। পর পর কয়েকদিন হাসপাতালে গিয়েও খালি হাতে পরিবারকে ফিরে আসতে হয়। শেষপর্যন্ত পরিবারকে ভবানীপুর থানার ওসি জানান, দেহ অদলবদল হয়ে গিয়েছে। অন্য কেউ নিয়ে দিয়ে বাবলু পোল্লের দেহ দাহ করে দিয়েছে। আর ঠিক এটা নিয়েই উঠছে প্রশ্ন। ময়নাতদন্তের নির্দিষ্ট নিয়ম থাকার পরও কীভাবে সাজাপ্রাপ্ত এক বন্দির দেহ রদবদল হয়? উঠছে প্রশ্ন।

Advertisement

মৃতের পরিবারের অভিযোগ, জেলের মধ্যে বাবলু পোল্লেকে পিটিয়ে খুন করা হয়েছে। তার পর তাঁর অঙ্গ প্রত্যঙ্গ পাচার করে দিয়েছে পুলিশ। এর পর পরিবারকে বোকা বানাতে চিত্রনাট্য সাজিয়েছে তারা। যদিও অভিযোগ প্রসঙ্গে পুলিশের তরফে কোনও প্রতিক্রিয়া মেলেনি। দেহ কীভাবে রদলবদল হল, তা নিয়েও মুখে কুলুপ হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের।

সৌজন্যে ডিজিটাল সংবাদ প্রতিদিন


শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সম্পর্কিত নিবন্ধ