দেশ 

অলোক ভার্মা মামলার শুনানী ৫ ডিসেম্বর পর্যন্ত পিছিয়ে দিল সর্বোচ্চ আদালত

শেয়ার করুন
  • 7
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

বাংলার জনরব ডেস্ক : অলোক ভার্মার মামলার শুনানির দিন ৫ তারিখ অবধি পিছিয়ে দিল সুপ্রিম কোর্ট। অলোক ভার্মাকে জোর করে ছুটিতে পাঠানো হয়েছে বলে তিনি সুপ্রিম কোর্টের কাছে বিচার চেয়ে আবেদন করেন। তার প্রেক্ষিতেই এদিন ম্যারাথন শুনানি চলে।
ভার্মার আইনজীবী যেমন সওয়াল করেন তেমনই সরকার পক্ষও পাল্টা সওয়াল করেছে। কেন্দ্র সরকার অবৈধভাবে অলোকভার্মাকে সরিয়ে দিয়েছে কিনা তা নিয়ে মূলত সওয়াল-জবাব চলে। প্রাক্তন ডেপুটি ডিরেক্টর রাকেশ আস্থানা দুর্নীতির অভিযোগ আনেন অলোক বর্মার বিরুদ্ধে। তার আগে আস্থানার বিরুদ্ধে ঘুষ মামলায় সিবিআইকে তদন্তের নির্দেশ দেন অলোক বর্মা। এদিন আদালতে বর্মার আইনজীবী ফলি নরিম্যান জানান, একমাত্র সিলেকশন কমিটি – যাতে থাকেন বিরোধী দলনেতা, প্রধানমন্ত্রী ও রাষ্ট্রপতি – তাঁরাই মিলিত সিদ্ধান্ত নিয়ে সিবিআই ডিরেক্টরকে সরাতে পারেন। এক্ষেত্রে তা করা হয়নি।

আর একদিকে সংসদের বিরোধী দলনেতা মল্লিকার্জু খারগের হয়ে মামলা লড়া কপিল সিব্বল বলেন, সরকার একতরফা এভাবে সিদ্ধান্ত নিলে এমন পদে নিরপেক্ষ নিয়োগের বিষয়টি নষ্ট হয়ে যাবে। সরকার পক্ষের তরফে অ্যাটর্নি জেনারেল কেকে বেনুগোপাল আদালতে বলেছেন, অলোক বর্মাকে পুরোপুরি সরানো হয়নি। তিনি সরকারি সমস্ত সুবিধা ভোগ করছেন। এরপর সমস্ত শুনানি শেষে আদালত ৫ ডিসেম্বর পর্যন্ত মামলা মুলতুবি করে দিয়েছে।

 

 

 


শেয়ার করুন
  • 7
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সম্পর্কিত নিবন্ধ

Leave a Comment