দেশ 

স্ত্রী পুত্রের সামনে কুপিয়ে খুন দিল্লিতে, রাজধানী শহরে নাগরিকের নিরাপত্তা প্রশ্নের মুখে!

শেয়ার করুন

বাংলার জনরব ডেস্ক : গাড়ি রাখা কে কেন্দ্র করে ঝামেলা হয়েছিল তার জেরে এক ব্যক্তির বাড়িতে ঢুকে স্ত্রী ও পুত্রের সামনে কুপিয়ে খুন করল এক ব্যক্তিকেই দুষ্কৃতীরা? গতকাল শনিবার  সন্ধ্যায় ঘটনাটি ঘটেছে দক্ষিণ-পূর্ব দিল্লির সরিতা বিহারে।

পুলিশ সূত্রে খবর, মৃত ব্যক্তির নাম অরবিন্দ মণ্ডল। শনিবার সন্ধ্যায় ছেলে আকাশকে নিয়ে স্কুল থেকে বাড়িতে ফিরেছিলেন তিনি। রাত পৌনে ১০টা নাগাদ ছয় দুষ্কৃতী বাইকে করে আসে। জোর করে অরবিন্দের বাড়িতে ঢুকে পড়ে। তার পর তাঁর স্ত্রী রেখার এবং পুত্র আকাশের সামনেই কোপাতে শুরু করে। রেখা বাধা দিতে গেলে তাঁর উপরও হামলা চালানো হয়। তিনি চিৎকার চেঁচামেচি করে পড়শিদের সাহায্য চাইতেই দুষ্কৃতীরা পালিয়ে যায়।

Advertisement

এই ঘটনায় গুরুতর জখম হন অরবিন্দ। হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলে চিকিৎসা চলাকালীনই তাঁর মৃত্যু হয়। এক পুলিশ আধিকারিক জানিয়েছেন, রাতে তারা একটি ফোন পান। তাদের জানানো হয় সরিতা বিহারে একটি বাড়িতে দুষ্কৃতীরা হামলা চালিয়েছে। সেই খবর পেয়েই ঘটনাস্থলে যায় পুলিশের একটি দল। তারাই অরবিন্দকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে যায়।

প্রাথমিক ভাবে পুলিশ জানতে পেরেছে পার্কিং নিয়ে পুরনো ঝামেলার জেরেই এই হামলা। বাইক পার্কিং নিয়ে বেশ কিছু দিন আগে অরবিন্দের সঙ্গে মনোজ হালদার নামে এক ব্যক্তির ঝামেলা হয়েছিল। শনিবার সন্ধ্যাতে সেই ঝামেলা মিটিয়েও নেন দু’জন। তার পর পুত্র আকাশকে নিয়ে বাড়িতে আসেন। রাত সাড়ে ৯টা নাগাদ জনা ছয়েক দুষ্কৃতী অরবিন্দের বাড়িতে ঢুকে হামলা চালায়।


শেয়ার করুন

সম্পর্কিত নিবন্ধ