দেশ 

দুর্নীতি করার লক্ষ্যেই ওরা জোটের নাম পরিবর্তন করে ‘ইন্ডিয়া’ করেছে দাবি অমিত শাহের

শেয়ার করুন

বাংলার জনরব ডেস্ক: বিজেপি বিরোধী জোট ইন্ডিয়া কে নিয়ে কটাক্ষ সমানেই চলছে। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী কয়েকদিন আগে মধ্যপ্রদেশে এক সভায় বক্তব্য রাখতে গিয়ে বলেছেন সনাতন ধর্মকে শেষ করতে চাইছে ইন্ডিয়া জোট। তা নিয়ে দেশজুড়ে বিতর্ক শুরু হয়েছে। এই বিতর্কের রেশ কাটতে না কাটতেই দেশের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ ইন্ডিয়া জোটকে ইন্ডি বলে কটাক্ষ করেছেন। একইসঙ্গে তিনি এও বলেছেন শুধুমাত্র দুর্নীতি করার জন্য ওরা জোটের নাম পাল্টে দিয়েছে।

শনিবার বিহারের মধুবনিতে বিজেপির এক জনসভায় তিনি বলেন, “আগে ওরা ইউপিএ নাম দিয়ে জোট করে ১২ লক্ষ কোটি টাকারও বেশি দুর্নীতি করেছে। এবার ওরা নতুন নাম দিয়ে দুর্নীতি করার ষড়যন্ত্র করছে। রেলমন্ত্রী থাকার সময় লালুপ্রসাদ যাদব বড় দুর্নীতি করেছিলেন। ইউপিএ নাম নিয়ে ওরা ফিরতে পারবে না বুঝতে পেরে, ওরা ওদের নতুন জোটের নাম রেখেছে ‘ইন্ডি’ জোট। ওদের জোটের নেতারা রাখিবন্ধন, জন্মাষ্টমীতে ছুটি বাতিল করে, রামচরিতমানসকে অসম্মান করে। সনাতন ধর্মকে রোগের সঙ্গে তুলনা করে। ওরা আসলে শুধু তোষণ আর দুর্নীতির রাজনীতি করছে।”

Advertisement

উল্লেখ‌্য, বিরোধীদের নয়া জোট ‘ইন্ডিয়া’কে ‘ইন্ডি’ জোট নামেই আক্রমণ করছে গেরুয়া শিবির। শুক্রবার এর কারণ ব‌্যাখ‌্যা করেছেন বিজেপি নেতা তথা সংসদীয় মন্ত্রী প্রহ্লাদ যোশী। তিনি বলেন, “কিছু লোক বলছেন ইন্ডিয়া অ‌্যালায়েন্স, কিন্তু বলা উচিত ইন্ডি অ‌্যালায়েন্স। জোট শব্দটি দুবার বলা ঠিক নয়।” শাহ বিহারে আরজেডি-জেডিইউ জোটকে ‘তেলে-জলে’ জোট বলেও কটাক্ষ করেছেন। তাঁর মতে, তেলে-জলে যেমন মিশ খায় না, তেমনই বিহারে লালু-নীতীশের জোটও ‘অবাস্তব’।

কয়েকদিন আগেই ইন্ডিয়া জোট সনাতন ধর্মকে (Sanatan Dharma) বিনষ্ট করতে চায় বলে মন্তব্য করেছিলেন প্রধানমন্ত্রী মোদি। তিনি বলেন, “সনাতন ধর্মকে শেষ করতে চাইছে ইন্ডিয়া জোট। স্বামী বিবেকানন্দ, লোকমান্য তিলকের মতো ব্যক্তিত্বকে অনুপ্রেরণা দিয়েছে যে সনাতন ধর্ম, তাকেই দেশ থেকে মুছে ফেলতে চাইছে ইন্ডিয়া জোট। আজ প্রকাশ্যে আমাদের ধর্মের উপর আক্রমণ করছে, কাল দেশের মানুষের উপর হামলা চালাবে। দেশের সমস্ত সনাতনী মানুষকে ইন্ডিয়া জোট থেকে সতর্ক থাকতে হবে। যারা দেশকে ভালোবাসেন, তাঁদের উচিত ইন্ডিয়া জোটকে রুখে দেওয়া।”

আসলে আর যাই হোক বিরোধীদের এই জোটকে যে ভয় পাচ্ছে শাসক বিজেপি তা নিয়ে কোন সন্দেহ নেই। তবে ২০২৪ এর লোকসভা নির্বাচনে বিজেপি জিততে পারবে কি পারবে না সেটা বড় কথা নয় বড় কথা হল ইন্ডিয়া জোট ইতিমধ্যেই নরেন্দ্র মোদি এবং অমিত শাহদের ভয় পাইয়ে দিয়েছে।


শেয়ার করুন

সম্পর্কিত নিবন্ধ