কলকাতা 

‘‘মন্ত্রী এবং বিধায়কদের বেতন না বাড়িয়ে সরকারি কর্মচারী, পুলিশ, শিক্ষক, অবসরপ্রাপ্ত পেনশনভোগীদের বকেয়া মহার্ঘ ভাতা মিটিয়ে দিক রাজ্য’’ : শুভেন্দু অধিকারী

শেয়ার করুন

বাংলার জনরব ডেস্ক : মন্ত্রী বিধায়কদের বেতন বৃদ্ধির কথা আজ বৃহস্পতিবার বিধানসভায় দাঁড়িয়ে ঘোষণা করেছেন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তবে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের এই ঘোষণাকে সমর্থন করছেন না বলে জানিয়ে দিয়েছেন বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারী।এদিন রাজভবনের বাইরে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে তিনি বলেন, ‘‘বিধায়কের ভাতা বৃদ্ধির সিদ্ধান্তকে সমর্থন করি না।’’

তিনি বলেন, ‘‘একতরফা ভাবে ওই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। আমরা অধিবেশনে ছিলাম না। আমরা ভাতা বৃদ্ধি চাই না।’’ তিনি আরও বলেন, ‘‘আমরা চাই আশা কর্মী, অঙ্গনওয়াড়ি কর্মী, গ্রামীণ পুলিশ, সিভিক ভলান্টিয়ার, অস্থায়ী কর্মী এবং ভোকেশনাল শিক্ষকদের প্রত্যেকের সমকাজে সমবেতন ঘোষণা করুন মুখ্যমন্ত্রী।’’ নিজেদের বেতনবৃদ্ধির পরিবর্তে সরকারি কর্মচারীদের মহার্ঘ ভাতা দেওয়ার দাবি তোলেন নন্দীগ্রামের বিধায়ক। তাঁর মতে, ‘‘মন্ত্রী এবং বিধায়কদের বেতন না বাড়িয়ে সরকারি কর্মচারী, পুলিশ, শিক্ষক, অবসরপ্রাপ্ত পেনশনভোগীদের বকেয়া মহার্ঘ ভাতা মিটিয়ে দিক রাজ্য।’’

Advertisement

তৃণমূল সরকারের লক্ষ্মীর ভান্ডার কর্মসূচিতে ৫০০ টাকা করে দেওয়া হয়। ৫০০ টাকার পরিবর্তে মহিলাদের ২০০০ টাকা দেওয়ার দাবি তোলেন শুভেন্দু। তিনি বলেন, ‘‘আমরা চাই ৫০০ টাকা বা হাজার টাকার ভাগাভাগি না করে পশ্চিমবঙ্গের সমস্ত মাতৃসম্প্রদায়কে ২০০০ টাকা করে দেওয়া হোক।’’

 


শেয়ার করুন

সম্পর্কিত নিবন্ধ