জেলা 

পরেশ কন্যা অঙ্কিতা যোগ দিলেন বিদ্যালয়ে, নিয়োগ অবৈধ অভিযোগ করে আন্দোলনের পথে আরএসএস

শেয়ার করুন
  • 3
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

বিশেষ প্রতিনিধি : কোনো সমালোচনায় কাজে আসল না । নিরবে নিভৃতে শিক্ষক হিসেবে কাজে যোগ দিলেন সদ্য তৃণমূলে যোগ দেওয়া প্রাক্তন মন্ত্রী পরেশ অধিকারীর মেয়ে অঙ্কিতা অধিকারী । তিনি আবার পোষ্টিং পেয়েছেন বাড়ির কাছেই এক বিদ্যালয়ে । রাজ্যের কয়েক হাজার শিক্ষক যখন দিনেরি দিন পরিবার স্ত্রী-পুত্র-কন্যাদের ছেড়ে বহুদূরে শিক্ষকতার চাকরি করছেন তখন শুধুমাত্র তৃণমূল কংগ্রেসে যোগ দিয়েই নিজের মেয়েকে বাড়ির কাছে পোষ্টিং করিয়ে দিলেন। এটাই মা-মাটি-মানুষের সরকারের প্রধান বৈশিষ্ট্য।

কিন্ত এই নিয়োগকে ঘিরে আবার নতুন করে আন্দোলন দানা বাধতে চলেছে । আরএসএসের ছাত্র সংগঠন অখিল ভারতী বিদ্যার্থী পরিষদ এই নিয়োগের ক্ষেত্রে ব্যাপক দুর্নীতি হয়েছে। এই অভিযোগ তুলে  মেখলিগঞ্জে ধিক্কার মিছিল করল এ বি ভি পি। মিছিল থেকে রাজ্যের প্রাক্তন মন্ত্রী ও তাঁর মেয়ের বিরুদ্ধে স্লোগান দেয় আর এস এস-র ছাত্র সংগঠন। এই আন্দোলনের প্রসঙ্গে এ বি ভি পি-র জেলা কার্যকর্তা হারু সরকার বলেন, “এই নিয়োগে দুর্নীতি হয়েছে। তাই আমাদের এই আন্দোলন চলবে।”

বাম জামানায়  গুরুত্বপূর্ণ মন্ত্রী ছিলেন। পরে ফরওয়ার্ড ব্লক ছেড়ে তৃণমূলে যোগ দেওয়ার পরে পরেশ অধিকারীর মেয়ে অঙ্কিতা অধিকারীর নাম উঠে আসে ওয়েট লিস্টের প্রথমে।  ইন্দিরা উচ্চবিদ্যালয় সূত্রে জানা গিয়েছে কাজে যোগ দিয়েছেন অঙ্কিতা।

বিতর্কের সূত্রপাত রাষ্ট্রবিজ্ঞানের শিক্ষক নিয়োগের জন্য স্কুল সার্ভিসের মেধা তালিকাকে কেন্দ্র করে। আদালতের নির্দেশে, স্কুল সার্ভিসে নিয়োগের ক্ষেত্রে আগে মেধা তালিকা প্রকাশ করা হয়। আর সেই তালিকা পিডিএফ ফরম্যাটে প্রকাশ করা বাধ্যতামূলক ছিল। কোচবিহারে রাষ্ট্রবিজ্ঞানের শিক্ষক নিয়োগের জন্য এসএসসি তালিকা প্রকাশ হয়েছিল। এসসি জাতিভুক্তদের জন্য মেধা তালিকার ওয়েট লিস্টে প্রথমে নাম ছিল ববিতা বর্মনের। অথচ পরে এসএসসি-র ওয়েবসাইটে রাষ্ট্রবিজ্ঞানের তফসিলি জাতির জন্য সংরক্ষিত আসনের ওয়েট লিস্টে দেখা যায় ববিতার নাম চলে গিয়েছে দ্বিতীয় স্থানে।


শেয়ার করুন
  • 3
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সম্পর্কিত নিবন্ধ

Leave a Comment