কলকাতা 

প্রভাবশালী তত্ত্বেই পার্থের জামিনের বিরোধিতা ইডির

শেয়ার করুন

বাংলার জনরব ডেস্ক : পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের জামিনের বিরোধিতায় এবার ইডি ঢাল খাল করলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় কে। আত্মীয় হিসাবে গ্রেফতার হওয়ার সময় প্রাক্তন মন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায় মুখ্যমন্ত্রীর নাম নিয়েছিলেন জেলে থাকাকালীন সময়ে হাতে আংটি ছিল আদালতে যখন আসতেন তখন বিশেষ গাড়ির ব্যবস্থা ছিল সুতরাং পার্থ হচ্ছেন হেভিওয়েট এবং প্রভাবশালীও বটে।

পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের জামিনের বিরোধিতায় এখনও সেই প্রভাবশালী তত্ত্বকেই হাতিয়ার করছে এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট৷ এদিন পার্থের জামিন মামলার শুনানি চলাকালীন ইডি-র আইনজীবী দাবি করেন, ‘‘গ্রেফতার হওয়ার মূহুর্তে পার্থ চট্টোপাধ্যায় অ্যারেস্ট মেমোতে আত্মীয় হিসাবে মুখ্যমন্ত্রীর নাম উল্লেখ করেছিলেন৷ এমনকি, গ্রেফতারির সময় তাঁকে যখন বলা হয়েছিল, তাঁকে গ্রেফতার করা হচ্ছে, কাকে জানাবেন? তিনি মুখ্যমন্ত্রীকে ফোন করেছিলেন। যদিও মুখ্যমন্ত্রী ফোন ধরেননি।’’

Advertisement

এরপরেই ইডি-র আইনজীবী প্রশ্ন তোলেন, পার্থ চট্টোপাধ্যায় এতটাই প্রভাবশালী যে, গ্রেফতার হয়ে সংশোধনাগারে গিয়েও হাতের আঙুলে আংটি পরতেন। যা নিয়ে এখন আইনি মামলায় পড়তে হয়েছে খোদ জেল সুপারকে৷ সংশোধনাগার থেকে আদালতে আনার সময় বিশেষ সুবিধা ভোগ করেন। তাঁর জন্য অন্যরকম গাড়ির ব্যবস্থা থাকে। একজন অ্যাসিস্ট্যান্ট কমিশনার রাঙ্কের অফিসার পাহারারত থাকেন৷ গ্রেফতারের পরে তাঁকে নিয়ে এইএমসে যেতে হয়েছিল৷

ইডি-র তরফে শুনানি শেষ হলেও, পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের জামিন মামলার রায়দান আপাতত স্থগিত রাখে আদালত৷ ২০২২ সালের ২২ জুলাই পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের বাড়িতে হানা দেয় ইডি৷ তাঁর বান্ধবী অর্পিতা মুখোপাধ্যায়ের ফ্ল্যাট থেকে একে একে উদ্ধার হয় কাঁড়ি কাঁড়ি টাকা৷ টাকার পাহাড় গুনতে রাত কাবার হয়ে যায় ইডি আধিকারিকদের৷


শেয়ার করুন

সম্পর্কিত নিবন্ধ