দেশ 

“কেউ যেন মনে না করে যে, তারা ভারত থেকে খ্রিস্টধর্মকে মুছে ফেলবে” : আর্য বিশপ

শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

বাংলার জনরব ডেস্ক: মনিপুরের জাতি দাঙ্গা নিয়ে এবার মুখ খুললেন কেরলের ক্যাথলিক আর্যবিষদ কাউন্সিলের প্রেসিডেন্ট তিনি বলেছেন ভারত থেকে খ্রিস্ট ধর্মকে মুছে দেওয়া যাবে না।মেইতেই ও কুকি জাতির সংঘর্ষে দু’মাসে কমপক্ষে ১৩০ জন নিহত হয়েছেন মণিপুরে (Manipur)। উত্তরপূর্বের রাজ্যের অশান্তি নিয়ে নীরব মোদিকে তোপ দেগে কেরল ক্যাথলিক আর্চবিশপ কাউন্সিলের প্রেসিডেন্ট কার্ডিনাল মার বাসেলিওস ক্লিমিস বলেন, “কেউ যেন মনে না করে যে, তারা ভারত থেকে খ্রিস্টধর্মকে মুছে ফেলবে।”

তিনি আরও বলেন, “মণিপুর নিয়ে মুখ খোলা উচিত প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির। গোটা বিশ্বের সামনে দেশের সার্বভৌমত্ব ও অখণ্ডতার উদাহরণ রাখা উচিত। ভারতের গণতন্ত্র বিরাজ করছে, এই বার্তা দেওয়ার এটাই সেরা সুযোগ।”

Advertisement

তিনি বলেন, “আমাদের সংবিধানে লেখা ধর্মনিরপেক্ষতা একটি আলংকারিক শব্দ নয় বরং প্রণীত দর্শন। আমাদের মহান সংবিধান যে কোনও ধর্ম পালনের অধিকার দেয়। কেন লুকিয়ে রাখা এই ভাবনাকে? কেন্দ্রের উচিত নীরবতা ভঙ্গ করা এবং মণিপুরে শান্তি ফিরিয়ে আনতে হস্তক্ষেপ করা।” এইসঙ্গে তাঁর বার্তা দেন, “কেউ যেন মনে না করে যে তারা ভারত থেকে খ্রিস্টধর্মকে মুছে ফেলবে।”

উল্লেখ্য, মণিপুরের জাতিহিংসা অনেক অংশে ধর্মীয় দাঙ্গার চেহারা নিয়েছে। পোড়ানো হয়েছে একাধিক চার্চ এবং মন্দির। উত্তরপূর্বের রাজ্যের আদিবাসী জনগোষ্ঠীর একটা অংশ খ্রিস্টান ধর্মাবলম্বী। এত বড় দাঙ্গার পরেও কেন্দ্র এবং রাজ্য সরকার উপযুক্ত ব্যবস্থা নিচ্ছে না বলে অভিযোগ। এদিন আর্চবিশপ বলেন, “যাঁরা সার্জিক্যাল স্ট্রাইক করেন, তাঁরা কেন মণিপুরে শান্তে ফেরাতে পারছে না।”


শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সম্পর্কিত নিবন্ধ