কলকাতা 

নাগরিক হিসেবে জানতে ইচ্ছা করে কলকাতার মহানাগরিক কেন পদত্যাগ করলেন ? : সরদার আমজাদ আলী

শেয়ার করুন
  • 1
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

বিশেষ প্রতিনিধি : কলকাতার মেয়র শোভন চট্টোপাধ্যায় পদত্যাগ করেছেন । তা নিয়ে বিভিন্ন সংবাদপত্রে খবর বেরিয়েছে । কিন্ত আমরা দেখতে পাচ্ছি না , তাঁর পদত্যাগের কারণ কী ? কোনো সংবাদ-মাধ্যমও এর সঠিক কারণ বের করতে পারেনি । কলকাতার নাগরিক হিসেবে আমাদের জানার অধিকার আছে শোভন চট্টোপাধ্যায় কেন পদত্যাগ করলেন ? এই প্রশ্ন তুললেন কংগ্রেস নেতা –প্রাক্তন সাংসদ ও বর্ষীয়ান আইনজীবী সরদার আমজাদ আলী ।

এক প্রশ্নে উত্তরে তিনি বলেন, সংবাদপত্রে শোভনের সঙ্গে এক কলেজের অধ্যাপিকার সর্ম্পক নিয়ে লেখালেখি হচ্ছে । কিন্ত এটাই আসল কারণ । পুরুষের সঙ্গে মহিলার সর্ম্পক থাকবে এটা তো স্বাভাবিক । আবার ডান-বাম সব রাজনৈতিক দলের নেতাদেরকে নিয়ে মহিলা ঘটিত গল্প তো বহুকাল ধরে চলে আসছে । এ থেকে তো কেউ-ই মুক্ত নয় বলে আমার মনে হয় । বিধান রায় সর্ম্পকেও এই ধরনের কথাবার্তা শোনা যেত , তা বলে বিধান রায়কে পদ ছাড়তে হয়নি । শোভনের ব্যক্তিগত সর্ম্পককে সামনে এনে যদি তাঁর পদ চলে গেছে বলে মনে হয় , তাহলে এরকম ব্যক্তিগত সর্ম্পক ঘিরে অধিকাংশ নেতা মন্ত্রীর পদ চলে যেতে পারে ।

তাঁর ব্যক্তিগত সর্ম্পক গুলিকে ছেড়ে দিয়ে  তাঁকে কাজের নিরিখে বিচার করে দলনেত্রীর যদি মনে হয় তিনি ওই পদের জন্য যোগ্য নন , তাহলে তিনি সঠিক কাজই করেছেন । সরদার আমজাদ আলী বলেন, সেই বিচার তো করা হয়নি । তিনি যে মেয়র পদের অযোগ্য তাও কোথাও বলা হয়নি । তাহলে কী শোভনবাবু অন্য কোনো ধরনের স্বজন-পোষণ ও দূনীর্তি সঙ্গে যুক্ত সে কথা্ও তো বলা হচ্ছে না । শুধু তাই নয় , শোভনবাবুকে নির্বাচিত করেছেন কলকাতা পুরসভার কাউন্সিলররা । তাঁরা তো কোনো অনাস্থা প্রস্তাব আনেননি । তাহলে কোন কারণে তাঁকে পদত্যাগ করতে বলা হয়েছে ? এই প্রশ্নটাই এখন বড় হয়ে উঠেছে । কারণ শোভনবাবু নিজেই বলেছিলেন , তাঁকে মেয়র পদ থেকে পদত্যাগ করতে বলা হয়েছে । কেন বলা হয়েছে ? তাঁর তিনি বলেছেন জানি না ! কলকাতার নাগরিকদের প্রশ্ন তাদের মেয়র কেন পদত্যাগ করলেন ? সেই উত্তরটা কে দেবে ?


শেয়ার করুন
  • 1
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সম্পর্কিত নিবন্ধ

Leave a Comment