কলকাতা 

আলিফ নবি ওমরের কলমে উঠে আসতো গার্ডেনরিচ মেটিয়াবুরুজের কথা

শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

বিশেষ প্রতিনিধি:রেডিওসহ বিভিন্ন দৈনিক , সাপ্তাহিকে সাংবাদিক আলিফ নবীর ওমরের ধারাবাহিক কলমে উঠে আসতো গার্ডেনরিচ মেটিয়াব্রুজ এলাকার কথা। দীর্ঘ রোগভোগের পর সম্প্রীতি তিনি ইন্তেকাল করেন। তাঁকে নিয়ে রবিবার মেটিয়াবুরুজ থানার বটতলা স্কুলে এক স্মরণ সভা অনুষ্ঠিত হয় রবীন্দ্র নজরুল মঞ্চের উদ্যোগে।

স্মৃতি স্মৃতিচারণায় সাংবাদিক জিতেন নন্দী বলেন, সাংবাদিক আলিফ-নবী ওমরের সময় গার্ডেনরিত ্ ছিল সাহিত্য ও সংস্কৃতি চর্চার স্বর্ণযুগ। একসময় এইসব এলাকা থেকে দশটি ঈদ সংখ্যা বের হতো। ঈদ সংখ্যা প্রকাশকে ঘিরে গার্ডেনরিজ মেটিয়াব্রুজ সাহিত্য সংসদের উদ্যোগে ঈদ মিলনী সাহিত্য সভা অনুষ্ঠিত হতো। প্রতিটি ঈদ সংখ্যাকে পুরস্কৃত করা হতো। পরিতাপের বিষয় এখন আর তা প্রকাশ হয় না।

তিনি আরো বলেন,এখন এক দুঃসময় চলছে বাণিজ্যিক জায়গা মেটিয়াব্রুজ সেখান থেকে এখন কোন পত্রপত্রিকা প্রকাশ হয় না। অথচ এই এলাকায় থেকে আলিফ নবীর ওমর এই এলাকার সমস্যা ও সমৃদ্ধির কথা লিখে গেছেন। আজকাল সহ বিভিন্ন দৈনিকে তার প্রতিবেদন প্রকাশ পেত। এলাকার নানান সমস্যার কথা নিয়ে লিখতেন অভিযোগ চিঠি। সেগুলো প্রকাশ হতো বহু পত্র পত্রিকা ্য়।সেই চিঠি গুলিকে একত্রিত করে বই আকারে প্রকাশ করলে অনেক বড় কাজ হবে।

বর্ষিয়ান সাহিত্যিক নিখিল রঞ্জন জোয়ারদার বলেন, আলিফ নবী ওমর সমাজকে অনেক কিছু দিয়ে গেছেন।

ডক্টর নুরুল ইসলাম বলেন, আলিফ নবী ওমর এক প্রতিভাবান মানুষ ছিলেন। কেবল কলকাতা রেডিওতে নয়, জার্মানিতেও তাঁর ভাষ্য প্রচার হোত। কেবল লেখনীতে নয়, সাম্প্রদায়িকতা ও ফ্যাসিবাদের বিরুদ্ধে তিনি বিভিন্ন সভাতে বক্তব্য রাখতেন।

শিক্ষক- সাংবাদিক আজিজুল হক বলেন, আলিফ নবীর ওমরকে দেখতাম বিভিন্ন পত্রপত্রিকার দপ্তরে। তিনি ছিলেন সমাজ ভাবনার মানুষ । লিখে গেছেন গার্ডেনরিচ মেটিয়াবুরুজ এলাকার সমস্যা ও সম্ভাবনার কথা। পরিতাপের বিষয়, এই এলাকা আন্তর্জাতিক বাণিজ্যিক কেন্দ্র। বিশেষ বাণিজ্যক কেন্দ্র হওয়ার সুবাদে সরকারি কোষাগারে মোটা ধরনের ট্যাক্স যায় এখান থেকে। অথচ এই এলাকার রাস্তাঘাটের বিশেষ উন্নতি হয়নি। রাস্তাঘাটের অবস্থা হাল বেহাল অবস্থা। খামতি রয়েছে শিক্ষা ও স্বাস্থ্যের। প্রয়োজন মতো নেই স্কুল-কলেজ ও হাসপাতাল।

এছাড়া স্মৃতিচারণা করেন শিক্ষারত্ন নুন নবী জমাদার, বেনজির আহমেদ, নজরুল হক প্রমূখ।


শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সম্পর্কিত নিবন্ধ