কলকাতা 

মন্ত্রীর আবেদন খারিজ ২৯ শে জুন মলয় ঘটককে দিল্লির ইডির সদর দফতরে হাজিরার নির্দেশ

শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

বাংলার জনরব ডেস্ক : পঞ্চায়েত নির্বাচনের কারণ দেখিয়ে দিল্লির ইডি অফিসে গত বুধবার হাজিরা এড়িয়েছিলেন মন্ত্রী মলয় ঘটক৷ মন্ত্রী মলয় ঘটক ইডিকে চিঠি দিয়ে জানান, পঞ্চায়েত নির্বাচনের জন্য ব্যস্ত তিনি রয়েছেন, তাই বর্তমানে তিনি হাজিরা দিতে অপারগ। প্রয়োজনে নির্বাচন মিটে যাওয়ার পরে তিনি যেতে পারবেন বলে আইনজীবী মারফত জানিয়েছিলেন মলয়৷ কিন্তু সূত্রের খবর, ইডি মলয় ঘটকের এই সময় চাওয়ার আবেদন খারিজ করেছে। ফের মলয় ঘটককে নোটিস দিল ইডি। এ মাসেই ২৬ জুন দিল্লিতে ইডির সদর দফতরে তলব করা হয়েছে তাঁকে। এছাড়াও অনুপ মাঝি লালাকে দিল্লিতে আগামী ২৯ জুন তলব করেছে ইডি।

ইডির দাবি, মলয় ঘটকের হাজিরা না দেওয়া আদতে আদালত অবমাননার শামিল। সেই কারণে, ফের তাঁকে নোটিস পাঠানো হল। জানা গিয়েছে, আদালতেও মলয় ঘটকের বিরুদ্ধে আদালত অবমাননার অভিযোগ আনবেন ইডির আধিকারিকেরা৷ ইডি সূত্রে খবর, এর আগে তিন বার তাঁকে নোটিস দেওয়া হয়েছিল। আদালতের নির্দেশ মেনে, তাঁর সঙ্গে কথা বলে পনেরো দিন আগে তাঁকে নোটিস পাঠানো হয়৷ তাহলে হঠাৎ সমস্যা হল কেন? প্রশ্ন ইডির৷।

Advertisement

অন্যদিকে, মলয় ঘটকের দাবি, যখন তাঁর সঙ্গে কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থার তরফে যোগাযোগ করা হয়, তখন তিনি জানতেন না কবে পঞ্চায়েত ভোট। এর মধ্যে পঞ্চায়েত ভোটের দিন ঘোষণা হয়ে যাওয়ায় তিনি নির্বাচন নিয়ে ব্যস্ত হয়ে পড়েছেন।

কয়লা পাচার মামলায় মলয় ঘটককে এর আগেও একাধিক বার নোটিস দেওয়া হয়েছিল। প্রসঙ্গত, কয়লা পাচার মামলায় একাধিক গুরুত্বপূর্ণ নাম সামনে এসেছে। তাঁদের ভূমিকা সম্পর্কে ও কয়লা পাচারের একাধিক গুরুত্বপূর্ণ বিষয় সম্পর্কে মন্ত্রীর কাছে জানতে চান ইডি আধিকারিকরা।


শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সম্পর্কিত নিবন্ধ