কলকাতা 

বিধানসভার কক্ষেও এক প্রস্থ শোভন-মমতা উত্তপ্ত বাক্য বিনিময়, কান্নায় ভেঙে পড়েন শোভন , বিকেলেই পদত্যাগ

শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

নিজস্ব প্রতিনিধি : শোভন চট্টোপাধ্যায় হয়তো ভাবতেই পারেননি তিনি যে দিদিকে এত ভালবাসেন, যার জন্য তিনি এত পরিশ্রম করেন , সেই দিদিই কিনা শেষ পর্যন্ত সকলের সামনে তাকে এভাবে বকবেন । এক বেসরকারী নিউজ পোর্টালের খবর অনুযায়ী ,আজ বিধানসভায় মুখ্যমন্ত্রী অধ্যক্ষের ঘরে ও পরে মুখ্যমন্ত্রীর নিজের ঘরে শোভনকে মুখ্যমন্ত্রী যাচ্ছেতাই ভাষায় বকেন, সেই সঙ্গে চলে উত্তপ্ত বাক্য বিনিময় । এর প্রতিফলন দেখা যায় বিধানসভার কক্ষের অন্দরেও। গীতাঞ্জলি আবাসন নিয়ে শোভন চট্টোপাধ্যায় পরিসংখ্যান দিয়ে বলেন, “২৪ লাখ বাড়ি গীতাঞ্জলি আবাসনের আওতায় আনা হয়েছে। এর উত্তরে মুখ্যমন্ত্রী নাকি বলেন, তুই কিছু জানিস না, ওটা ৪০ লাখ হবে।”

শহরে একের পর এক অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় মুখ্যমন্ত্রী প্রশ্ন করেন শোভনকে। শোভনের কাছ থেকে কোনও সদুত্তর না পেয়ে তিনি চিৎকার করে তাঁকে বকতে থাকেন। মুখ্যমন্ত্রীর ধমক খেয়ে কাঁদতে শুরু করেন শোভন। তখন মমতা কড়াভাবে শোভনকে বলেন, ব্যক্তিগত জীবনযাপন না বদলালে তাঁকে দলে রাখা সম্ভব নয়। এরপর বিকেল ৪টে ১৫ মিনিট নাগাদ মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের আপ্তসহায়ক গৌতম সান্যালের কাছে গিয়ে মুখবন্ধ খামে পদত্যাগ পত্র জমা দেন ।

 

 

 


শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সম্পর্কিত নিবন্ধ

Leave a Comment