দেশ 

দুর্ঘটনাস্থল বালেশ্বরে দাঁড়িয়ে মৃতের পরিবারকে ৫ লক্ষ টাকা, আহতদের ৫০ হাজার টাকা করে ক্ষতিপূরণ ঘোষণা মুখ্যমন্ত্রীর, রেলমন্ত্রীর সামনেই রেলের নিরাপত্তা নিয়ে তীব্র ক্ষোভ প্রকাশ করলেন মমতা

শেয়ার করুন

বাংলার জনরব ডেস্ক: ওড়িশার বালেশ্বরে ট্রেন দুর্ঘটনা নিয়ে তীব্র ক্ষোভ প্রকাশ করলেন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় আজ সকালে তিনি বালেশ্বর যাওয়ার সিদ্ধান্ত নেন সেই মতো হেলিকপ্টারে বারোটা পনের নাগাদ তিনি ওড়িশার বালেস্বরে পৌঁছে যান।

গতকাল শুক্রবার সন্ধ্যায় করমন্ডল এক্সপ্রেস এবং হাওড়া বেঙ্গালুরু এক্সপ্রেস দুর্ঘটনায় লাফিয়ে বাড়ছে মৃতের সংখ্যা। ভয়াবহ এই দুর্ঘটনার জন্য রেলের বিরুদ্ধে ক্ষোভ উগরে দিলেন বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। পাশাপাশি আহত ও নিহতদের পরিবারের জন্য আর্থিক সাহায্যও ঘোষণা করলেন তিনি।

Advertisement

মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বালেশ্বর এ পৌঁছেই নিহতদের পরিবারের জন্য পাঁচ লক্ষ টাকা করে ঘোষণা করেন তিনি। আহতদের জন্য ৫০ হাজার টাকা করে দেওয়া হবে। পাশাপাশি মুখ্যমন্ত্রী এও জানান, বাংলা থেকে আড়াইশোরও বেশি অ্যাম্বুল্যান্সের ব্যবস্থা করা হয়েছে। ৪০ জন ডাক্তার ঘটনাস্থলে কাজ করছেন। এছাড়াও বাংলার যাত্রীদের বাড়ি ফেরাতে বাস পরিষেবার ব্যবস্থাও করা হয়েছে। ওড়িশা সরকারের সঙ্গে হাতে হাত মিলিয়ে কাজ করার বার্তাও দেন মুখ্যমন্ত্রী।

তবে এই দুর্ঘটনাকে ‘শতাব্দীর সবচেয়ে বড় দুর্ঘটনা’ আখ্যা দিয়ে রেলকে তোপ দাগতেও ছাড়েননি মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। রেলমন্ত্রী অশ্বিনী বৈষ্ণবের পাশে দাঁড়িয়েই বলে দেন, “আমি তিন বছর রেলমন্ত্রী হিসেবে কাজ করেছি। কিন্তু এখন মনে হয় রেলে নিজেদের মধ্যে কোনও কো-অর্ডিনেশন নেই। কীভাবে এমন ভয়ংকর ঘটনা ঘটল তার ভাল করে তদন্ত হোক।”


শেয়ার করুন

সম্পর্কিত নিবন্ধ