জেলা 

বাগনানের বাইনান মোড়ে কংগ্রেস কর্মীদের উদ্যোগে উৎসাহ-উদ্দীপনার সঙ্গে পালিত হল ইন্দিরা গান্ধীর ১০২ তম জন্ম জয়ন্তী

শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

বাবু হক : হাওড়া জেলার বাগনান থানার বাইনান মোড়ে ভারতের প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী ইন্দিরা গান্ধীর ১০২ তম  জন্ম জয়ন্তী উৎসাহ ও উদ্দীপনার সঙ্গে সোমবার উদযাপন করল এলাকার কংগ্রেস কর্মীরা ।

হাওড়া জেলার আমতা বিধানসভা কেন্দ্রের আঠারোটি গ্রাম পঞ্চায়েত এলাকায় এশিয়ার মুক্তি সূর্য  জাতীয় কংগ্রেসের সভানেত্রী ও প্রয়াত প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী ইন্দিরা গান্ধীর ১০২ তম বার্ষিক জন্ম জয়ন্তী উদযাপন আমতা কেন্দ্রের আঠারোটি গ্রাম পঞ্চায়েত এলাকায় যথাযথ মর্যাদার সাথে নানান রকমের অনুষ্ঠানের মাধ্যমে  পালন করা হয়  ।

মূল অনুষ্ঠানটি হয় বাগনান থানার সাবসীট অঞ্চল কংগ্রেস কমিটির ব্যবস্থাপনায় ও আমতা  কেন্দ্র কংগ্রেসের আয়োজনে অনুষ্ঠিত হয় । জাতীয় ও কংগ্রেসের পতাকা উত্তোলন শহীদ বেদীতে মাল্যদান করা হয়। এই উপলক্ষে আয়োজিত সভায় সভাপতিত্ব করেন আমতা কেন্দ্র কংগ্রেসের সভাপতি সমরেন্দ্র নাথ মল্লিক। ইন্দিরা গান্ধীর মূর্তিতে মাল্যদান করেন হাওড়া জেলা কংগ্রেসের নেতা মুক্তি রাম প্রান্তি বসু,সেখ সামসুদ হোসেন,সেখ জাইদুল ইসলাম, শম্ভূনাথ ঘোষ, আঠারোটি গ্রাম পঞ্চায়েতের নেতৃত্ব, প্রাক্তন ছাত্র নেতা সুপ্রিয় বাবু ঘোষ, আমতার বিধায়ক অসিত বরণ মিত্র প্রমুখ।

এদিনের সভায় ইন্দিরা গান্ধীর কর্মময় জীবনের বিভিন্ন দিক থেকে তথ্য পরিসংখ্যান সহকারে আলোচনা করা হয়।আর এস এস ,বজরং দল পরিচালিত কেন্দ্রের এনডিএ জোটের বিজেপি সরকারের ও ‍রাজ্যে মা মাটি মানুষের সরকারের সকল জনবিরোধী নীতি, ধর্মের নামে বিভেদের নোংরা রাজনীতির কঠোর সমালোচনা করে বক্তব্য রাখেন পর্যায়ক্রমে উপস্থিত কংগ্রেসের নেতৃত্ব ।‍রাজ্যে গনতন্ত্র বিপন্ন, নিরাপত্তা তলানিতে, বিরোধী দলের নেতা কর্মীদের নামে, এমনকি যে কোন প্রতিবাদী মানুষের নামে মিথ্যা  মামলা দিয়ে হয়রানি ও নিপীড়ন, গ্রেফতার করা হচ্ছে বলে অভিযোগ করেন কংগ্রেস নেতারা।

আর উন্নয়ন ও কল্যাণ প্রকল্প থেকে লুটের রাজত্ব কায়েম হয়েছে, আর পরিবারের সদস্যরা আতঙ্কে দিন কাটাচ্ছেন কারণ পরিবারের কোন সদস্যকে মিথ্যা মামলায় আটক করে জেলে পুরে দিল বলে খবর না এসে পৌঁছায়।আর শিশু ও নারীদের মধ্যে যে কোন সময় ধর্ষণের শিকার না হতে হয়। বিরোধী দল করলে বা প্রতিবাদ করলেই ফসল নষ্ট,জমি  দখল,ব্যবসা প্রতিষ্ঠান ও গৃহে হামলা লুটপাট করেছে পুলিশ প্রশাসনের কর্মকর্তাদের সামনে উল্টো মিথ্যা মামলা দিয়ে জব্দ করার পরিকল্পনা প্রতিনিয়ত চলছে।

গনতন্ত্রের রক্ষক , ভক্ষকে পরিনত হয়েছে। ধর্মের নামে সুড়সুড়ি দিয়ে দাঙ্গা হাঙ্গামা করার চক্রান্ত চলছে। আমাদের  কংগ্রেসের সকল নেতা কর্মীদের সর্বদা সজাগ থাকতে হবে দেশ ও জাতির স্বার্থে আমাদের আন্দোলন সংগ্রাম অব্যাহত রাখতে হবে সমস্ত দিক থেকে রক্ষা করতে হবে।দল  থেকে যে নির্দেশ আসবে তা মেনে নিয়ে আলোচনা করে এগিয়ে যেতে হবে। কেন্দ্র ও রা‍জ্যে স্বৈরাচারী সরকার চলছে ,আর প্রকল্পের নাম পরিবর্তন করে নতুন নতুন নাম দিয়ে এরা বাহাবা নেওয়ার চেষ্টা করছে।

ভ্রান্ত নীতির জন্য,ভাতৃঘাতী দাঙ্গা হাঙ্গামা ছড়িয়ে দেওয়ার চেষ্টা করছে এরা তা আমাদের রুখতে হবে জনমত গঠন করে । সর্বদাই সজাগ থেকে  আপামর জনসাধারণ কে সংগঠিত করে এগিয়ে যেতে হবে , এদের বিরুদ্ধে দুর্বার আন্দোলন সংগ্রাম অব্যাহত রাখতে হবে। হাওড়া জেলা কংগ্রেসের সভাপতি পলাশ ভাণ্ডারী, আমতার বিধায়ক অসিত বরণ মিত্র প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন ও বক্তব্য রাখেন পর্যায়ক্রমে।

 


শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সম্পর্কিত নিবন্ধ

Leave a Comment