কলকাতা 

CBSE-র দশম ও দ্বাদশ শ্রেণীর কলকাতার কয়েকটি স্কুলের ফলাফল এক নজরে

শেয়ার করুন

শুক্রবার, ১২ মে প্রকাশিত হয়েছে সেন্ট্রাল বোর্ড অব সেকেন্ডারি এডুকেশন (সিবিএসই)-র দশম এবং দ্বাদশ শ্রেণির ফলাফল। মাত্র কয়েক কয়েক ঘণ্টার ব্যবধানে প্রকাশিত হয় রেজাল্ট। এ বছর দ্বাদশ শ্রেণির মতো দশমেও কমেছে পাশের হার। দ্বাদশ এবং দশমের পরীক্ষায় এ বার পাশের হার যথাক্রমে ৮৭.৩৩ এবং ৯৩.১২ শতাংশ। যা আগের বছরের তুলনায় যথাক্রমে ৫.৩৮ এবং ১.২৮ শতাংশ কম। দশমের রেজাল্টে মেয়েরা ছাপিয়ে গেছে ছেলেদের।

বোর্ড জানিয়েছে, ছাত্রছাত্রীদের মধ্যে অস্বাস্থ্যকর প্রতিযোগিতা দূরে রাখার জন্য তাদের তরফে কোনও মেধাতালিকা প্রকাশ করা হবে না। এমনকি পরীক্ষার্থীরা প্রথম, দ্বিতীয় বা তৃতীয় ডিভিশনের মধ্যে কোন ডিভিশনে পাশ করেছে, তারও উল্লেখ থাকবে না রেজাল্টে। শুধুমাত্র যে পড়ুয়ারা বিভিন্ন বিষয়ে সর্বোচ্চ নম্বর পেয়েছে, সেই ০.১ শতাংশদের মেধার শংসাপত্র দেওয়া হবে বোর্ডের তরফে।

Advertisement

বোর্ডের তরফে অঞ্চলভিত্তিক এবং স্কুলভিত্তিক পাশের হারের তালিকা প্রকাশ করা হলেও রাজ্যে কোন স্কুলের রেজাল্ট কেমন তা আলাদা ভাবে জানানো হয়নি। তারই একটি তালিকা রইল-

এই রাজ্যে দশম শ্রেণির রেজাল্টে প্রথম দশে কোন স্কুলের কোন পড়ুয়া?

১. অশোক হল গার্লস হাই স্কুলের পৃথা পাল ( ৯৮.৪০ শতাংশ), তানিয়া নারাঙ্গ (৯৬.২০ শতাংশ), শ্রেষ্ঠা ঘোষ (৯৬.২০ শতাংশ), নয়নিকা ঘোষ (৯৬ শতাংশ)।

২. ভবনস গাঙ্গুবক্স কানোরিয়া বিদ্যামন্দিরের দেবদত্তা দাসগুপ্ত (৯৭.৬ শতাংশ), অস্মিতা চট্টোপাধ্যায় (৯৭.৪ শতাংশ), প্রেরণা চৌধুরি (৯৭ শতাংশ)।

৩. শ্রী শিক্ষায়তন স্কুলের পৃথা বন্দোপাধ্যায় (৯৯ শতাংশ), বিয়াত্রি মণ্ডল (৯৮.৮ শতাংশ), স্বচ্ছতোয়া মুখোপাধ্যায় (৯৮.৮ শতাংশ), শ্রমণা বিশ্বাস (৯৮.৪ শতাংশ)।

৪. দিল্লি পাবলিক স্কুল, রুবি পার্কের ইপ্সা রায় (৯৯ শতাংশ), সালোনি মণ্ডল (৯৮.৮ শতাংশ), দিশান্ত বসু (৯৮.৮ শতাংশ), অভিক্ষিত মণ্ডল মাইতি (৯৮.৪ শতাংশ), অলকানন্দা ধর (৯৮.৪ শতাংশ)।

৫. দিল্লি পাবলিক স্কুল, হাওড়ার রিশিকা ত্রিবেদী (৯৯ শতাংশ), অরিহন্ত ভাইয়া (৯৮ শতাংশ), অর্কসোম মুখোপাধ্যায় (৯৬ শতাংশ), হর্ষিত শ্রীবাস্তব (৯৬ শতাংশ)।

৬.সাউথ পয়েন্ট স্কুলের কৃতিকা গুহ (৯৯ শতাংশ), সায়ন্তন মণ্ডল (৯৮.৮ শতাংশ), স্বীকৃতি দাস বিশ্বাস (৯৮.২ শতাংশ), নিশান্তিকা ঘোষ (৯৮.২ শতাংশ), নিলয় দত্ত (৯৮.২ শতাংশ)।

এ ছাড়াও এই তালিকায় রয়েছে লক্ষ্মীপত সিংঘানিয়া স্কুল, জিডি গোয়েঙ্কা পাবলিক স্কুল, দক্ষিণেশ্বর, বিড়লা ভারতী স্কুল, অ্যাডামাস ওয়ার্ল্ড স্কুল, বিড়লা হাই স্কুল, ইন্দাস ভ্যালি স্কুল, বিডিএম ইন্টারন্যাশনাল স্কুলের কৃতীরা।

দ্বাদশ শ্রেণির রেজাল্টে প্রথম দশে কোন স্কুলের কোন পড়ুয়া?

১. দিল্লি পাবলিক স্কুল, হাওড়ার বিজ্ঞান বিভাগের দেবপ্রিয় মাইতি (৯৭.৬ শতাংশ), কমার্সের দীক্ষা বনসল (৯২.৮ শতাংশ), হিউম্যানিটিজের প্রথা পরস (৯২ শতাংশ)।

২. দিল্লি পাবলিক স্কুল, রুবি পার্কের বিজ্ঞান বিভাগের আর্য বসাক (৯৮.৮ শতাংশ), কমার্সের অরণ্য হালদার (৯৯ শতাংশ), হিউম্যানিটিজের নওশিন নাজরিন (৯৭.২ শতাংশ)।

৩. লক্ষ্মীপত সিংঘানিয়া স্কুলের বিজ্ঞান বিভাগের কুশা শ্রীবাস্তব এবং মেঘল জৈন (৯৮.৬ শতাংশ), কমার্সের অরিহন্ত শেঠি (৯৭.৮ শতাংশ), হিউম্যানিটিজের অনিকেত চক্রবর্তী (৯৮.৬ শতাংশ)।

৪. এপিজে স্কুল, পার্ক স্ট্রিটের বিজ্ঞান বিভাগের আদিত্য গুপ্ত (৯৭ শতাংশ), কমার্সের তনয় সাপারিয়া (৮৮.৮ শতাংশ), হিউম্যানিটিজের আর্যমন বিশ্বাস (৯৭.২ শতাংশ)।

৫. এপিজে স্কুল, সল্ট লেকের অন্বেষা গোস্বামী এবং অভীপ্সা গঙ্গোপাধ্যায় (৯৬.৬ শতাংশ), কমার্সের আদিত্য লাখোটিয়া (৯৫ শতাংশ)।

৬. বিডিএম ইন্টারন্যাশনালের বিজ্ঞান বিভাগের প্রত্যুষ দাস (৯৭.২ শতাংশ), হিউম্যানিটিজের দীপিতা বসু (৯৮.২ শতাংশ)।

এ ছাড়াও এই তালিকায় রয়েছে ভবনস গাঙ্গুবক্স কানোরিয়া বিদ্যামন্দির, অশোক হল গার্লস হায়ার সেকেন্ডারি স্কুল, জিডি গোয়েঙ্কা পাবলিক স্কুল, দক্ষিণেশ্বর,সাউথ পয়েন্ট হাই স্কুল, শ্রী শিক্ষায়তন স্কুল, বিড়লা হাই স্কুলের কৃতীরাও।

 


শেয়ার করুন

সম্পর্কিত নিবন্ধ