কলকাতা 

শিক্ষক নিয়োগ দুর্নীতির মামলায় তৃণমূল বিধায়ক তাপস সাহার বিরুদ্ধে সিবিআই তদন্তের নির্দেশ কলকাতা হাইকোর্টের

শেয়ার করুন

বাংলার জনরব ডেস্ক : গতকাল সোমবার শিক্ষক নিয়োগ দুর্নীতির মামলায় গ্রেফতার হয়েছেন মুশিদাবাদের তৃণমূল বিধায়ক জীবনকৃষ্ণ সাহা। জীবনকে নিয়ে মোট তিনজন তৃণমূল বিধায়ক এখন শিক্ষক নিয়োগ মামলায় জেলবন্দী। বিধায়ক জীবনকৃষ্ণ সাহার গ্রেফতারি ২৪ ঘন্টার মধ্যেই আরো একটা খবর শাসক তৃণমূল কংগ্রেসকে অস্বস্তিতে ফেলেছে। নদীয়ার তেহট্টের বিধায়ক তাপস সাহার বিরুদ্ধে সিবিআই তদন্তের নির্দেশ দিলেন বিচারপতি রাজাশেখর মান্থার।

Advertisement:

Advertisement

উল্লেখ্য তাপস সাহা টাকা নিয়ে চাকরি দিয়েছেন এই অভিযোগ করেছিল বেশ কয়েকজন ভুক্তভোগী। একইসঙ্গে ওই জেলার একাধিক ব্যক্তি তৃণমূল কংগ্রেসের সাধারণ সম্পাদক অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়কে চিঠি দিয়ে তাপস সাহার অপকর্মের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার অনুরোধ জানানো হয়েছিল। এই ঘটনার পরে কয়েক মাস কেটে গেলেও তাপস সাহার বিরুদ্ধে তেমন কোন ব্যবস্থা এখনো শাসক দল নেয় নি।

উপরন্তু, সিআইডি তদন্তের নামে তাপস সাহাকে বাদ দিয়ে বাকি অন্যদের বিরুদ্ধে তদন্ত শুরু হয়। আর এ নিয়েই কলকাতা হাইকোর্টের দারস্ত হয়েছিলেন কয়েকজন পরে সিবিআই এর কাছে বিচারপতি জানতে চান তারা এই মামলার দায়িত্ব নিতে চান কিনা। আজ মঙ্গলবার কলকাতা হাইকোর্টে সিবিআই জানিয়ে দেয় তাপস সাহার বিরুদ্ধে তদন্ত করতে কোন অসুবিধা নেই। এর পরই বিচারপতি রাজাশেখর মান্থার শিক্ষক নিয়োগ দুর্নীতির মামলার সঙ্গে যুক্ত থাকার জন্য তাপস সাহার বিরুদ্ধে সিবিআই তদন্তের নির্দেশ দেন। পঞ্চায়েত নির্বাচনের মুখে এইভাবে একের পর এক তৃণমূল নেতা বিধায়করা দুর্নীতিতে যুক্ত হয়ে যাওয়ায় দলকে যে চরম অস্বস্তিতে পড়তে হচ্ছে তা নিয়ে কোন সন্দেহ নেই।


শেয়ার করুন

সম্পর্কিত নিবন্ধ