জেলা 

শ্রীরামপুরে বিজেপির ধর্না মঞ্চ খুলে দিল পুলিশ

শেয়ার করুন

বাংলার জনরব ডেস্ক : আজ মঙ্গলবার শ্রীরামপুরে বিজেপির ধর্না মঞ্চ খুলে দিল পুলিশ । সুতরাং পূর্ব ঘোষণা মত বিজেপি রিষড়ার অশান্তির ঘটনাকে কেন্দ্র করে শ্রীরামপুরে যে ধর্নার ডাক দিয়েছিলেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি সুকান্ত মজুমদার । আক্ষরিক অর্থে সেই ধর্না হবে না বলেই মনে করা হচ্ছে । আসলে গতকাল রাতে তিন ঘন্টা ধরে রিষড়া স্টেশন অবরোধ করা হয় যার ফলে গভীর রাত পর্যন্ত আটকে পড়ে রেলযাত্রী । আর এই ঘটনাকে সামনে রেখেই শ্রীরামপুর ও রিষড়ায় জারি করা হয়েছে ১৪৪ ধারা ।

উল্লেখ্য,  সোমবার সুকান্ত যাওয়ার চেষ্টা করেছিলেন রিষড়ায়। কিন্তু যাওয়ার সময় তাঁকে কোন্নগরের বিশালক্ষ্মীতলায় আটকে দেয় পুলিশ। তার প্রতিবাদে বিজেপি কর্মী-সমর্থকদের নিয়ে রাস্তায় বসে ধর্না শুরু করেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি। সকাল থেকে প্রায় পাঁচ ঘণ্টা অবস্থান চালিয়ে যাওয়ার পর তা তুলে নেন তিনি। সেই সঙ্গে ঘোষণা করেন, মঙ্গলবার শ্রীরামপুর বটতলায় ফের ধর্নায় বসবেন। প্রয়োজনে অনির্দিষ্ট কাল ধর্না চালানোর হুঁশিয়ারিও দেন তিনি। কিন্তু সোমবার রাতে নতুন করে উত্তেজনা ছড়ায় রিষড়া স্টেশন সংলগ্ন এলাকায়। স্টেশনের কাছে চার নম্বর রেল গেট এলাকায় ব্যাপক বোমাবাজি হয় বলে অভিযোগ। ওই কাণ্ডের জেরে বেশ কিছু ক্ষণ বন্ধ থাকে হাওড়া-ব্যান্ডেল মেন লাইনে ট্রেন চলাচল তার জেরে চরম দুর্ভোগে পড়েন নিত্যযাত্রীরা। এর পর মঙ্গলবার সকালে শ্রীরামপুরের বটতলা এলাকায় সুকান্তর যে ধর্না মঞ্চ তৈরি করা হয়েছিল, তা সরিয়ে দেয় পুলিশ। চন্দননগর পুলিশ কমিশনারেটের অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার (ডিডি) ইসরাত জাহান জানিয়েছেন, ওই ধরনার কোনও অনুমতি নেই। সাধারণ মানুষের যাতে কোনও অসুবিধা না হয় সেই কারণে ধর্নার অনুমতি দেওয়া হয়নি বলে জানিয়েছেন তিনি।

Advertisement

বিজেপির অবশ্য দাবি, ইমেল মারফত তাঁরা ওই ধর্না চালিয়ে যাওয়ার অনুমতি নিয়েছেন। এ কথা জানিয়েছেন বিজেপির শ্রীরামপুর সাংগঠনিক জেলার সভাপতি মোহন আদক। তাঁর মতে, সাধারণ মানুষের কোনও অসুবিধা না করেই ধর্না দিতে চান তাঁরা। এ নিয়ে শ্রীরামপুর থানাতেও যান বিজেপি নেতারা। তবে সোমবার রাতের ঘটনার পর মঙ্গলবার থেকে রিষড়া এবং শ্রীরামপুর থানা এলাকায় ১৪৪ ধারা জারি করা হয়েছে।


শেয়ার করুন

সম্পর্কিত নিবন্ধ