দেশ 

উপ রাজ্যপাল মনোনীত সদস্যরা দিল্লি পুরসভার মেয়র নির্বাচনে অংশ নিতে পারবেন না জানিয়ে দিল সুপ্রিম কোর্ট,খুশি অরবিন্দ কেজরিওয়াল

শেয়ার করুন

বাংলার জনরব ডেস্ক : দিল্লি পুরসভায় হেরে যাওয়ার পরেও ঘুরপথে মেয়র পদ দখল করার চেষ্টা করে বিজেপি। কিন্তু বিজেপির এই চেষ্টা শেষ পর্যন্ত সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশে ব্যর্থ হলে বলে মনে করা হচ্ছে। গত দুমাস আগে দিল্লি পুরসভার ভোট হয়ে যাওয়ার পরেও মেয়র নির্বাচন করা সম্ভব হয়নি।

তিনবার মেয়র নির্বাচনের জন্য বৈঠক বসলেও শেষ পর্যন্ত নানা অজুহাতে ও অশান্তিতে মেয়র নির্বাচন পিছিয়ে যায়। কেন্দ্রের শাসকদল বিজেপি চেষ্টা করে যে কোন প্রকারে দিল্লির শাসক আপকে মেয়র পদে জিততে না দিতে। কারণ আড়াইশো আসন বিশিষ্ট দিল্লি পুরসভার নির্বাচনে আপ এককভাবে ১৩৪ টি আসন পেলেও সাংসদ বিধায়ক এবং মনোনীত সদস্যদের ভোটে জেতার চেষ্টা করে বিজেপি।

Advertisement

আর সুপ্রিম কোর্ট আজ শুক্রবার এই মামলার রায় দিতে গিয়ে স্পষ্ট জানিয়ে দেন ওপর রাজ্যপাল কর্তৃক মনোনীত সদস্যরা মেয়র নির্বাচনী অংশ নিতে পারবেন না এর ফলে দিল্লী পুরসভার মেয়র পদে আপ প্রার্থীর জয়ের সম্ভাবনা উজ্জ্বল হল।

সুপ্রিম কোর্টের প্রধান বিচারপতি ডিওয়াই চন্দ্রচূড় শুক্রবার বলেন, ‘‘এক বার মেয়র নির্বাচিত হওয়ার পর অন্য নির্বাচন সংক্রান্ত বৈঠক হবে। মেয়রের নির্বাচন সকলের আগে হওয়া উচিত। এর পর মেয়রই ডেপুটি মেয়র নির্বাচনের জন্য বৈঠকের ডাক দেবেন।’’

সুপ্রিম কোর্টের এই রায়কে স্বাগত জানিয়েছে দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী টুইটারে লিখেছেন, ‘‘সুপ্রিম কোর্টের এই রায় গণতন্ত্রের জয়। সুপ্রিম কোর্টকে অনেক ধন্যবাদ। আড়াই মাস পর এ বার দিল্লি নতুন মেয়র পাবে। এটা প্রমাণিত হয়ে গেল যে, উপরাজ্যপাল আর বিজেপি মিলে দিল্লিতে বেআইনি এবং অসাংবিধানিক নির্দেশ পাশ করাচ্ছে।’’

 


শেয়ার করুন

সম্পর্কিত নিবন্ধ