দেশ 

বিজেপি-র ‘মিসড কল‘ প্রকল্প অনুকরণ করে দেশব্যাপী নিচু তলার কর্মীদের সঙ্গে যোগাযোগ স্থাপনের লক্ষ্যে কাজ শুরু কংগ্রেসের

শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

বিশেষ প্রতিনিধি : অমিত শাহের মস্তিস্ক প্রসূত বিজেপি বহুল প্রচারিত ‘মিস্ড কলে’র মাধ্যমে সদস্য সংগ্রহ প্রকল্প এ বার রাহুল গাঁধীও প্রয়োগ করতে চলেছেন !

দলের নিচু তলার কর্মীদের সঙ্গে কংগ্রেস সভাপতির সরাসরি সংযোগ স্থাপন গড়ে লক্ষ্যে তৈরি হয়েছে ‘শক্তি’ প্রকল্প।বাংলায় ওই প্রকল্পের আনুষ্ঠানিক সূচনা হওয়ার কথা আগামী বুধবার বিধান ভবন থেকে।

তবে বিজেপি মিসড কল প্রকল্পকে সরাসরি অনুকরণ করছে না কংগ্রেস, কংগ্রেসের পরিকল্পনা অবশ্য একটু আলাদা। কংগ্রেস সূত্রের খবর, নানা রাজ্যেই একেবারে নিচু তলার দলীয় নেতা-কর্মীদের সঙ্গে সরাসরি কথা বলতে চাইছেন রাহুল। সেই জন্যই এমন প্রকল্পের ভাবনা। সাংগঠনিক স্তরে দু’টি ফোন নম্বর দিয়ে কর্মীদের বলা হচ্ছে, সেখানে ‘মিস্ড কল’ করতে। তার পরে ওই নম্বর থেকে মেসেজ এলে তার জবাবে দিতে হবে সচিত্র ভোটার পরিচয়পত্রের (এপিক) নম্বর। তা হলেই নাম উঠে যাবে ‘শক্তি’ প্রকল্পে এবং সংশ্লিষ্ট কর্মী পাবেন স্বয়ং রাহুলের তরফে একটি বার্তা। যে সব মোবাইল নম্বর ‘শক্তি’র অধীনে নথিভুক্ত হবে, তার মধ্যে থেকেই বেছে নিয়ে যোগাযোগ করবেন কংগ্রেস সভাপতি। এপিক নম্বর পেলে এআইসিসি-র সংশ্লিষ্ট প্রযুক্তিগত বিভাগ যোগাযোগকারীদের বিধানসভা কেন্দ্রভিত্তিক ভাগ করে নেবে।

প্রদেশ কংগ্রেসের বর্ধিত বৈঠক বসছে মঙ্গল ও বুধবার। তার মধ্যে এক দিন ‘শক্তি’র সূচনার জন্য সময় রাখতে বলেছেন এআইসিসি-র তরফে বাংলার ভারপ্রাপ্ত নেতা গৌরব গগৈ। সেইমতোই প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি সোমেন মিত্র প্রদেশ স্তরের সব নেতা, শাখা সংগঠন ও জেলা নেতৃত্ব এবং সাংসদ-বিধায়কদের নির্দিষ্ট অনুষ্ঠানে হাজির থাকতে বলেছেন। তাঁর বক্তব্য, ‘‘বুথ পর্যন্ত জনসম্পর্ক গড়ে তুলতে এই প্রকল্প অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। এই কাজ এলাকায় এলাকায় ছড়িয়ে দিতে দলের সকলকে সক্রিয় ভূমিকা নিতে হবে।’’আর ‘শক্তি’র মাধ্যমে কর্মীদের সঙ্গে যোগাযোগ করবেন দলীয় সভাপতি রাহুল নিজে।


শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সম্পর্কিত নিবন্ধ

Leave a Comment