দেশ 

গ্রেপ্তার বিজেপি নেতা জনার্দন রেড্ডি

শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

বাংলার জনরব ডেস্ক : চিটফান্ড কাণ্ডে জড়িত থাকার অভিযোগে কর্ণাটকের প্রাক্তন বিজেপি দলের মন্ত্রী জনাদর্ন রেড্ডিকে গ্রেপ্তার করেছে ইডি। তাঁকে আদালতে তোলা ২৪ নভেম্বর পর্যন্ত বিচারবিভাগীয় হেপাজতে রাখার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

তাঁর বিরুদ্ধে অভিযোগ, এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেটের তদন্তাধীন একটি ঘটনায় তিনি অভিযুক্তকে বাঁচাতে তাঁর কাছ থেকে ৫৭ কিলো সোনা নিয়েছিলেন। যার বাজার মূল্য ১৮ কোটি টাকা। এই ঘটনায় জনার্দন রেড্ডির পাশাপাশি তাঁর সেক্রেটারি আলি, ব্যবসায়ী রমেশ কোঠারি ও অপর এক ব্যক্তির নাম জড়ায়।
এ প্রসঙ্গে কর্নাটকের পুলিশ কমিশনার টি সুনীল কুমার জানিয়েছেন, একটি সংস্থা সাধারণ মানুষকে এই প্রতিশ্রুতি দিয়ে ব্যবসা করছিল যে, তাদের কাছে টাকা রাখলে লাভের ৩০-৪০ শতাংশ টাকা আমানতকারীদের ফিরিয়ে দেবে। ২০১৬-১৭ সালে ওই সংস্থায় অনেকে টাকা রাখেন। প্রথম ধাপে অনেককে টাকা ফেরত দিয়ে দেয় সংস্থা। কিন্তু তারপর থেকে আর গ্রাহকের টাকা ফেরত দিতে পারেনি ওই সংস্থা তখন সংস্থার বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের হয়। ২০১৭ সালের জানুয়ারি মাসে ইডি ওই সংস্থার অফিসে হানা দেয়। এরপর ক্রাইম ব্রাঞ্চ এই ১৮ কোটি টাকার জালিয়াতির ঘটনা জানতে পারে।

তদন্তে জানা যায়, সংস্থাটি বাজার থেকে তোলা বিপুল পরিমাণ টাকা রমেশ কোঠারিকে দিয়েছিল। সোনার অলঙ্কারের ব্যবসা আছে রমেশ কোঠারির। রমেশ কোঠারি জেরায় জানিয়েছিল, ১৮ কোটি টাকার সোনা কিনে জনার্দন রেড্ডিকে তা পাঠানো হয়েছিল।

 

 

 

 


শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সম্পর্কিত নিবন্ধ

Leave a Comment