দেশ 

আমেরিকার মায়ামি বিমানবন্দর উড়িয়ে দেওয়ার হুমকি দিয়ে গ্রেপ্তার উত্তরপ্রদেশের এক ছাত্র

শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

বাংলার জনরব ডেস্ক : মাসকয়েক আগে ভারতের এক তরুণ ১০০০ মার্কিন ডলারের বিট কয়েন কিনে প্রতারিত হয়েছিল। এরপরই সে এফবিআই-এর কাছে অভিযোগ দায়ের করে। কিন্তু এফবিআই-এর তদন্তে আশানুরূপ ফল না পাওয়াতেই সে মায়ামি বিমানবন্দর উড়িয়ে দেওয়ার হুমকি দিতে শুরু করে। আর এই হুমকি কলের জন্যই শনিবার উত্তরপ্রদেশ পুলিশের সন্ত্রাসবিরোধী শাখা (এটিএস) এলাহাবাদ থেকে এক ১৮ বছরের এক যুবককে গ্রেফতার করেছে। তাঁর বিরুদ্ধে অভিযোগ তিনি মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের মায়ামি বিমানবন্দর উড়িয়ে দেওয়ার হুমকি দিয়েছিলেন।

তাঁর বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন উত্তরপ্রদেশের  অ্যান্টি টেরোরিস্ট সেলের আইজি অসীম অরুণ।

অক্টোবরের ২ থেকে ৩১ তারিখের মধ্যে বেশ কয়েকবার মায়ামি বিমানবন্দরে সন্ত্রাসবাদি হামলার হুমকি দিয়ে ফোন এসেছিল। সেই ফোন কলে বলা হয়েছিল, ‘একে৪৭, গ্রেনেড, সুইউসাইড বেল্ট নিয়ে এসে সবাইকে মেরে ফেলব।’
তদন্তে নেমে মার্কিন গোয়েন্দা সংস্থা এফবিআই জানতে পারে ভয়েস ওভার ইন্টারনেট প্রোটোকল ব্যবহার করে ওই হুমকি দেওয়া হয়েছে। আইপি অ্যাড্রেসের সন্ধান করে তারা দেখে ফোন কলটি আসছে উত্তরপ্রদেশের এলাহাবাদ থেকে।
এরপরই এফবিআই ভারতের তদন্তকারী সংস্থা এনআইএ-এর সঙ্গে যোগাযোগ করে । এনআইএ তথ্য দেয় উত্তর প্রদেশের পুলিশকে। তাদের অ্যান্টি টেরোরিস্ট সেই এদিন ওই যুবককে গ্রেফতার করেছে। তাঁর বিরুদ্ধে শীঘ্রই চার্জশীট পেশ করা হবে।

জানা গেছে ওই উত্তরপ্রদেশের সারদা বিশ্ববিদ্যালয়ে ছাত্র । ওই ছাত্রের নাম এ বিলাল ।


শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সম্পর্কিত নিবন্ধ

Leave a Comment