বিনোদন, সংস্কৃতি ও সাহিত্য 

গানে গানে মাতোয়ারা ‘মিলন বিথি’র বিজয়া মিলন

শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সংবাদাতা, কলকাতা: গানে গানে মুখর আর কোলাকুলি গলাগলির মধ্যেই সার্থক হয়ে ওঠে বিজয়া সম্মেলনী। গত ২৮ নভেম্বর,২০১৮ মুকুন্দপুর নয়াবাদ স্থিত গ্রীন ক্লাব পথের বাসিন্দারা তেমনটাই প্রমাণ দিলেন ‘মিলন বিথি’ আয়োজিত বিজয়া সম্মেলনীর অনুষ্ঠানে।গান, কবিতা, আলোচনায় সাজানো এদিন প্রাঞ্জল অনুষ্ঠানের শুভ সূচনা হয় হৈমন্তী দাসের পরিবেশিত দুটি রবীন্দ্র সংগীত দিয়ে।শারোদৎসব ও বিজয়া সম্মেলনের পবিত্র উদ্দেশ্যকে সামনে রেখে এদিন এক তাৎপর্যপূর্ণ আলোচনা সভা আয়োজিত হয়।

সংস্থার সভাপতি অশোক চক্রবর্তীর সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় নিজেদের তথ্য সম্বলিত ভক্তব্য রাখেন উপদেষ্টা মণ্ডলীর সুব্রত চক্রবর্তী, রাজেশ সিং, বাবাজী বেহেরা, অশোক ব্যানার্জী, বিশেষ আমণ্ত্রীত অতিথি কৃষ্ঞদূত,সংস্থার সহ সভাপতি সঞ্জীব কুমার দাশ ও রঞ্জন নাথ। সভায় অনুষ্ঠানের সঞ্চালক কথাশিল্পী শেখ আব্দুল মান্নান বলেন – কলকাতার বাইরে তথা পশ্চিমবঙ্গের বাইরে মানুষের ধারনা কলকাতার ফ্লাটবন্দী শিক্ষিতরা ভীষণ আত্মকেন্দ্রীকগ।বিপদে আপদে পাশের ফ্লাটের প্রতিবেশীর দিকে তারা ফিরেও তাকায় না।এ অপবাদ আর চলতে দেওয়া যায় না। চেস্টা করলেই এ রকম অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে এ অপবাদ ঘোঁচানো যায়। মনুর সন্তানদের এ অমানবিকতার বিনাশ ঘটিয়ে দায়-বিপদে একে অপরের পাশে দাড়ানো যায়।


এদিনের প্রাণখোলা অনুষ্ঠানে তরুণ সিন্টু দাস বাউলের একগুচ্ছ উপস্থিত দর্শক শ্রোতার মন জয় করে নেয়। এমনকি তাঁর একতারার তালে, ঢোলকের বোলে আর হারমোনিয়ামের মূর্ছনায় পরিবেশিত গানে আপ্লুত কয়েকজন শ্রোতা আর্থিক সম্মানে সম্মানীত করে। পরিণতদের মধ্যে সংগীত ও আবৃতিতে অনুষ্ঠানের মানকে অন্যমাত্রায় পৌঁছে দেন জয়শ্রী চক্রবর্তী ও শর্মিষ্ঠা জানা।কচিকাঁচাদের মধ্যে এদিন যারা অনুষ্ঠানের আনন্দযোগ্গে নাচে গানে মাতোয়ারা হয়ে যায় তারা হলো শুভ্রজ্যোতি মণ্ডল ঐন্দ্রী বেহেরা, বিদিশা শৎপতি, কৌস্তভ পাণ্ডা, দেবাদিত্য হাজরা ও ভব্যা সিং। সম্পাদক সুভাষ মণ্ডল, সহ সম্পাদক ধীর শংকর হাজরা, কার্তিক রায় এবং কোষাধ্যক্ষ অলোক রঞ্জন বেহেরার আন্তরিক সহযোগিতায় আয়োজিত এদিনের অনুষ্ঠান স্মরণীয় হয়ে থাকবে।j


শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সম্পর্কিত নিবন্ধ

Leave a Comment