দেশ 

নতুন অর্ডিন্যান্সে সই করলেন রাষ্ট্রপতি, শিশু ধর্ষণে কার্যকর হল মৃত্যুদন্ড

শেয়ার করুন
  • 17
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

বিজে নিউজ ডেস্কঃ  শিশু ধর্ষণ নিয়ে কেন্দ্রের আনা নতুন অর্ডিন্যান্সে সই করলেন রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দ। রবিবারই এই নয়া অর্ডিন্যান্সে সই করেন তিনি। এর ফলে এদিন থেকেই ১২ বছর কিংবা তার কমবয়সী শিশুকন্যাকে ধর্ষণের সাজা হিসাবে যাবজ্জীবন কারাদন্ডের পাশাপাশি মৃত্যুদন্ডও অন্তর্ভুক্ত হল।
কাঠুয়া, উন্নাও ও সুরাত ধর্ষণকান্ডের পর থেকেই দেশজুড়ে জ্বলে উঠে প্রতিবাদের আগুন। যার ফলে প্রবল চাপে ছিল নরেন্দ্র মোদির সরকার।
যত দিন যাচ্ছিল তত প্রশাসনের উপর সাধারণ মানুষ থেকে সেলিব্রেটিদের ক্ষোভ বাড়ছিল। এই পরিস্থিতিতে শিশুদের যৌন নির্যাতন, যৌন হেনস্থথা নিয়ন্ত্রণ করতে নতুন অর্ডিন্যান্স আনার  সিদ্ধান্ত নেয় কেন্দ্র।
এই নতুন অর্ডিন্যান্সে ১২ বছর কিংবা তার কম বয়সি শিশুকে ধর্ষণে মৃত্যুদণ্ডের প্রস্তাব দেওয়া হয়। শনিবারই এই নয়া অর্ডিন্যান্স কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভায় পাশ হয়। এর পর থেকে তা রাষ্ট্রপতির সইয়ের অপেক্ষায় ছিল। তার পরেই নতুন অর্ডিন্যান্সটি আইনে পরিণত হওয়ার কথা ছিল। রবিবারই এই অর্ডিন্যান্সে সই করেন রাষ্ট্রপতি। ফলে এদিন থেকেই এই নতুন আইন কার্যকর হয়েছে।
রাষ্ট্রপতির এই সম্মতির পর ভারতীয় আইনবিধিতেও বেশকিছু পরিবর্তন এল। ধর্ষণ মামলার দ্রুত শুনানির জন্য রাজ্যগুলির সহযোগিতা নিয়ে গঠন করা হচ্ছে ফাস্ট ট্র্যাক। এক্ষেত্রে সময় বেঁধে দিয়ে বলা হয়েছে ধর্ষণ মামলার তদন্ত শেষ  করতে হবে দুমাসের মধ্যে, শুনানি শেষ করতে হবে দুমাসের মধ্যে ও আপিল মামলার নিষ্পত্তি করতে হবে ছয় মাসের মধ্যে। এছাড়া যেকোনও ধর্ষণের ক্ষেত্রে ন্যুনতম সাজা সাত বছর থেকে বাড়িয়ে দশ বছর করা হয়েছে। যা বাড়িয়ে যাবজ্জীবম করারও সুযোগ থাকছে। আবার ১৬ বছরের কমবয়সী মেয়েদের ধর্ষণের সাজাদন্ড করা হয়েছে ২০ বছর। এছাড়া ১২ বছর কিংবা তার কম বয়সি কন্যাদের ধর্ষণের ক্ষেত্রেও ন্যূনতম সাজা ১০ বছর থেকে বাড়িয়ে ২০ বছর করা হয়েছে।

শেয়ার করুন
  • 17
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সম্পর্কিত নিবন্ধ

Leave a Comment