জেলা 

বুনিয়াদপুরের বংশীহারী নদীর ব্রিজে পর্যাপ্ত আলো না থাকাই রাত বাড়তেই অসামাজিক কাজ চলছে অভিযোগ

শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

নিজস্ব প্রতিনিধি :  দক্ষিণ দিনাজপুর জেলার বুনিয়াদপুর বংশীহারী টাঙন নদীর উপর ব্রিজে পর্যান্ত আলোর ব্যবস্থা না থাকার অভিযোগ স্থানীয় বাসিন্দাদের। তাদের বক্তব্য, আলো না থাকার কারণে রাতে ব্রিজের নিচে চলছে অসামাজিক কাজ। এবিষয়ে প্রশাসন নির্বিকার বলে আরও অভিযোগ তাদের। টাঙন সেতু তৈরি হওয়ার পর কোনও আলোর ব্যবস্থা ছিল না। সেই কারণে অসুবিধা হত এলাকার মানুষের। বংশীহারী পঞ্চায়েতের তরফে সোলার লাইটের ব্যবস্থা করা হয়। কিন্তু, কিছুদিন যেতে না যেতেই তা খারাপ হয়ে যায়। একবছর আগে এই এলাকা বুনিয়াদপুর পৌরসভার অধীনে এলে ফের এলইডি লাইটের ব্যবস্থা করা হয়। বাসিন্দাদের অভিযোগ, সেই লাইটও খারাপ হয়ে যায় মাঝে মধ্যে। রাত বাড়লে ব্রিজের নিচে চলে অসামাজিক কাজ। পুলিশ-প্রশাসনকে জানিয়েও কোনও কাজ হয়নি।
এই বিষয়ে এলাকার এক বাসিন্দা বিশ্বজিত সন্ন্যাসী বলেন, “এই ব্রিজটি গঙ্গারামপুর এবং বুনিয়াদপুরের মধ্যে যোগাযোগ স্থাপন করে। ব্রিজ দিয়ে সারাদিন প্রচুর গাড়ি হিলি হয়ে বাংলাদেশ যায়। সেই কারণে এই ব্রিজের রক্ষণাবেক্ষণ খুব জরুরি। এই ব্রিজের বিভিন্ন অংশ ভাঙা অবস্থায় পড়ে রয়েছে। যেকোনও মুহূর্তে বড় দুর্ঘটনা ঘটে যেতে পারে। সোলার লাইট লাগানো হয়েছিল। কিন্তু, বছরখানেক আগে সেটাও অকেজো হয়ে যায়। মাঝেমাঝে জ্বলে। আবার মাঝে মাঝে জ্বলে না। ব্রিজের নিচে চলে জুয়ার ঠেক। ড্রাগ ও আফিম নেওয়া সহ বিভিন্ন অসামাজিক কাজও চলে। আমরা চাই প্রশাসন খুব দ্রুত এই ব্রিজের দিকে নজর দিক।”
বুনিয়াদপুর পৌরসভার চেয়ারম্যান অখিল বর্মণ লাইট নিয়ে অভিযোগের বিষয়টি স্বীকার করছেন। তিনি বলেন, “যে এজেন্সি কাজ করেছিল তাদের ডাকা হয়েছিল। আমরা খুব তাড়াতাড়ি লাইটগুলি জ্বালানোর ব্যবস্থা করছি। এই এজেন্সি বলেছে তারের সমস্যা রয়েছে। নতুন করে লাইটের তার ফেলতে হবে।”

 


শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সম্পর্কিত নিবন্ধ

Leave a Comment