আন্তর্জাতিক 

পারমাণবিক পরীক্ষা বন্ধের কথা ঘোষণা করলেন কিম

শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

 

পিয়ংইয়ং, ২১ এপ্রিলঃ  মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের আহ্বানে সাড়া দিয়ে শেষ পর্যন্ত পারমাণবিক পরীক্ষা বন্ধের পাশাপাশি একটি পারমাণবিক কর্মসূচী  স্থাপনা বন্ধের কথা ঘোষণা করলেন উত্তর কোরিয়ার প্রেসিডেন্ট কিম জং-উন। আজ, শনিবার নিজের এই সিদ্ধান্তের কথা জানান তিনি। মূলত দেশের শান্তি স্থাপন ও অর্থনৈতিক উন্ননয়নের দিকে নজর দিতেই এই সিদ্ধান্ত বলে মনে করা হচ্ছে। উত্তর কোরিয়ার প্রেসিডেন্টের এই সিদ্ধান্তকে স্বাগত জানিয়েছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট। তিনি টুইট করে বলেছেন, ‘কিম জং-উন যে সিদ্ধান্তের কথা ঘোষণা করেছেন, তা উত্তর কোরিয়া ও সারা বিশ্বের জন্য ভালো খবর। এর ফলে সার্বিক অগ্রগতি সম্ভব হবে।’ আবার দক্ষিণ কোরিয়ার প্রেসিডেন্ট মনু জের কিমের এই সিদ্ধান্তকে সমর্থন করে তাকে ‘অর্থপূর্ণ অগ্রগতি’ বলে মন্তব্য করেছেন।
কোরিয়ার সেন্ট্রাল নিউজ এজেন্সি জানিয়েছে, আজ থেকেই কোরিয়া সমস্ত ধরনের পারমাণবিক পরীক্ষা এবং মূল পরীক্ষা কেন্দ্র বন্ধ করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। প্রসঙ্গত, গত বৃহস্পতিবার ট্রাম্প বলেছিলেন, পারমাণবিক কর্মসূচি স্থগিত করলে উত্তর কোরিয়ার জন্য দারুণ সাফল্যের পথ খোলা রয়েছে। ট্রাম্পের সেই আহ্বানে সাড়া দিয়েই পারমাণবিক কর্মসূচী বন্ধের কথা ঘোষণা করেছেন বলে মনে করা হচ্ছে।উত্তর কোরিয়ার গণমাধ্যমে কিমের ঘোষণার কয়েকটি গুরুত্বপূর্ণ অংশ তুলে ধরা হয়েছে। তাতে বলা হয়েছে, পারমাণবিক সক্ষমতায় সন্তুষ্ট হয়ে নতুন বছরের শুরুতে কিম যে বিবৃতি দিয়েছিলেন, এটি তারই প্রতিফলন। ছয়টি পারমাণবিক পরীক্ষার পর উত্তর কোরিয়ার মনে হয়েছে, তাদের আর বর্তমান ব্যবস্থা নিয়ে সামনে এগোনোর দরকার নেই। তবে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের ইচ্ছা অনুযায়ী এটিকে পারমাণবিক কর্মসূচি থেকে সরে যাওয়া বলা যাবে না। উত্তর কোরিয়া তাদের মূল পারমাণবিক স্থাপনা বন্ধের ঘোষণা দিলেও পারমাণবিক অস্ত্র ধ্বংস করার কোনো প্রতিশ্রুতি দেয়নি।

শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সম্পর্কিত নিবন্ধ

Leave a Comment