দেশ 

“২০১৪ সালে যাঁরা ভোটে জিতে সরকার গড়েছিলেন, তাঁরা ২০২৪-এ জিতবেন তো?” কংগ্রেস আরজেডির সমর্থন নিয়ে নতুন মুখ্যমন্ত্রী হিসাবে শপথ নেওয়ার পর মোদিকে কটাক্ষ নীতিশের

শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

বাংলার জনরব ডেস্ক : বিজেপির সঙ্গে জোট ভেঙ্গে কংগ্রেস আরজেডিকে সঙ্গে নিয়ে নতুন সরকার গঠন করার পরে কার্যত মোদিকে চ্যালেঞ্জ ছুড়ে দিলেন বিহারের মুখ্যমন্ত্রী নীতিশ কুমার। গতকাল পদত্যাগ করার পর আজ আবার নতুন করে শপথ নিয়ে নিতেশ কুমার রীতিমত মোদি ২০২৪ এ ক্ষমতায় আসবেনা বলে জানিয়ে দিলেন।তাঁর ভাষায়, “২০১৪ সালে যাঁরা ভোটে জিতে সরকার গড়েছিলেন, তাঁরা ২০২৪-এ জিতবেন তো?”

নীতীশের কথায়, সমস্ত বিরোধী দলের উচিত কেন্দ্রে বিজেপি নেতৃত্বাধীন জোটের বিরুদ্ধে এককাট্টা হওয়া। সেই সেতুবন্ধের কাজ তিনি এ বার করতে চান। তবে নীতীশ স্পষ্ট করে দেন, প্রধানমন্ত্রী পদের দৌড়ে তিনি নেই।

Advertisement

নীতীশ কুমারের দল বিহারে যে দুর্বল হয়েছে তা নিয়ে সন্দেহ নেই। কিন্তু তাতে জাতীয় স্তরে তাঁর রাজনৈতিক উচ্চতা কমেনি। তাৎপর্যপূর্ণ হল, বিজেপির সঙ্গে সরকার গড়েও তিনি গেরুয়া বা তথাকথিত সাম্প্রদায়িক রাজনীতির ছোঁয়াচ এড়িয়ে চলারই চেষ্টা করেছিলেন। এনডিএ ছাড়ার পরই তিনি যে ভাবে বিজেপি বিরোধিতা শুরু করে দিলেন তাতে বিরোধী শিবিরে নীতীশ অন্যতম চরিত্র হয়ে উঠতে পারেন বলেই অনেকে মনে করছেন।

পর্যবেক্ষকদের মতে, দেশের প্রধান বিরোধী দল কংগ্রেস এখন নীতীশ কুমারকে সামনে রেখে বিরোধী চোর তৈরি করার উদ্যোগ নিয়েছে । বিহারের বিজেপি সরকারের পতনের পর নীতিশ কুমার এমনিতেই দেশের বিরোধী শিবিরে ঐক্যের পথিক হিসেবে আত্মপ্রকাশ করতে চলেছেন বলে পর্যবেক্ষক। আর এই প্রেক্ষাপটে শপথ নেওয়ার পরেই যেভাবে তিনি মোদীকে আক্রমণ করলে তাতে এটাই স্পষ্ট হচ্ছে আগামী দিনের নিতীশ কুমারের নেতৃত্বে বিরোধী জোট তৈরি হবে।

এ একথা অস্বীকার করা যাবে না বিহারে বিজেপি জোট সরকারের পতনের পর ঝাড়খন্ড সরকারকে আর ফেলতে পারবে না মোদি সরকার বা বিজেপি। বেশ কয়েক মাস ধরে দেশের রাজনীতিতে প্রচার চলছিল এরপর ঝাড়খন্ড সরকারকে ভেঙে দেওয়া হবে সেটা এখন বিজেপির কাছে কঠিন হয়ে পরলো বলে মনে করা হচ্ছে।

 


শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সম্পর্কিত নিবন্ধ