কলকাতা 

প্রাথমিক টেট পরীক্ষায় পাশ করা সব প্রার্থীকেই চাকরি দিতে হবে নির্দেশ কলকাতা হাইকোর্টের

শেয়ার করুন
  • 3
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

বিশেষ প্রতিনিধি :  ২০১৫ সালের ১১ অক্টোবর রাজ্যজুড়ে অনুষ্ঠিত হয়েছিল প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগের টেট পরীক্ষা । সেই পরীক্ষায় যারা ভুল প্রশ্নের উত্তর লিখেছে তাদেরকে পুরো নম্বর দেওয়ার নির্দেশ দিল কলকাতা হাইকোর্ট । বুধবার কলকাতা হাইকোর্ট প্রাইমারি টেট মামলার চূড়ান্ত রায়ে এই নির্দেশ দিয়েছে । প্রাইমারি শিক্ষা পর্ষদকে কলকাতা হাইকোর্টের নির্দেশ দিয়েছে টেট পাস করলে চাকরি দিতে হবে। আর যে ভুল প্রশ্ন নিয়ে বিতর্ক দানা বেঁধেছিল, সেই ভুল প্রশ্নের উত্তর লিখেছে যাঁরা, তাদের পুরো নম্বর দিতে হবে।

২০১৪ সালের প্রাইমারি টেট পরীক্ষার প্রশ্নে ভুল নিয়ে কলকাতা হাইকোর্টে মামলা দায়ের করেন পরীক্ষার্থীরা। এই পরীক্ষা হয়েছিল ২০১৫ সালের ১১ অক্টোবর। সেই পরীক্ষায় ১১টি প্রশ্নের বিকল্প উত্তর ভুল ছিল। তা নিয়েই যাবতীয় বিতর্ক। যা গড়ায় কলকাতা হাইকোর্ট পর্যন্ত। শেষপর্যন্ত কলকাতা হাইকোর্টেই তা ফয়সালা হল। টেটের ফল প্রকাশের পর শতাধিক পরীক্ষার্থী একই ইস্যুতে মামলা দায়ের করে। এই পরীক্ষায় মামলাকারীরা অকৃতকার্য হয়েই বিক্ষোভে ফেটে পড়েন। তাঁরা প্রশ্নপত্র যাচাইয়ের দাবি তোলেন। মামলার দীর্ঘ শুনানি চলে কলকাতা হাইকোর্টে।

এরই মধ্যে ২১ জুন কলকাতা হাইকোর্ট বিশ্বভারতী বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যকে দায়িত্ব দেন প্রশ্ন ও উত্তর খতিয়ে দেখতে।হাইকোর্ট নির্দেশ দেয়, মুখ বন্ধ খামে ১৯ সেপ্টেম্বরের মধ্যে কোনটি ঠিক, কোনটি ভুল তা রিপোর্ট আকারে জমা দিয়ে হবে আদালতে। এরপর ওই ১১টি প্রশ্নকে ভুল স্বীকৃতি দেয় কলকাতা হাইকোর্ট। সেই রিপোর্ট খতিয়ে দেখে বুধবার কলকাতা হাইকোর্ট এই রায় দেয় ।

 


শেয়ার করুন
  • 3
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সম্পর্কিত নিবন্ধ

Leave a Comment