কলকাতা 

নির্বাচন কমিশনের চাহিদা অনুযায়ী কেন্দ্রীয় বাহিনী তুলে নেওয়া হলেও ,প্রয়োজনে আবার তা মোতায়েন করা হবে মুখ্যমন্ত্রীকে আশ্বাস রাজনাথের

শেয়ার করুন
  • 2
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

বিশেষ প্রতিনিধি : বিভিন্ন রাজ্যে ভোট করানোর জন্য নির্বাচন কমিশনের চাহিদা অনুযায়ী কেন্দ্রীয় বাহিনী তুলে নেওয়া হলেও তা আবার মোতায়েন করা হবে বলে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রাজনাথ সিং রাজ্য সরকারকে আশ্বাস দিয়েছেন। নবান্নে আজ পূর্বাঞ্চলীয় পরিষদের  বৈঠকের পর মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি কে সঙ্গে নিয়ে এক যৌথ সাংবাদিক বৈঠকে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, রাজ্যের নিরাপত্তার জন্য কেন্দ্রীয় বাহিনীর প্রয়োজন। কিন্তু নির্বাচনে নিরাপত্তা দেওয়ার জন্য নির্বাচন কমিশনের চাহিদা মতো বিভিন্ন রাজ্য থেকে বাহিনী তুলে নিতে হয়। সেই একই কারণে এ রাজ্য থেকেও বাহিনী প্রত্যাহার করা হয়েছিল কিন্তু তা প্রয়োজনে আবারও মোতায়েন করা হবে।

উল্লেখ্য রাজ্যের জঙ্গলমহল ও পাহাড়ে মোতায়েন থাকা কেন্দ্রীয় বাহিনীর একটি বড় অংশ প্রত্যাহার করে নেওয়ায়, রাজ্য সরকার একাধিকবার কেন্দ্রের কাছে আপত্তি জানিয়েছে।

এদিকে আজ পূর্বাঞ্চলীয় পরিষদের বৈঠকে 30 টি বিষয় নিয়ে আলোচনা হয় যার মধ্যে 26 টি বিষয়ে সমাধান সূত্র মিলেছে বলে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী জানিয়েছেন। আন্ত:রাজ্য কাউন্সিল সচিবালয়ের সচিব শ্রী আর. বুহরিল জানিয়েছেন, বৈঠকে মাওবাদী মোকাবিলা, পূর্বাঞ্চলীয় রাজ্য গুলির আর্থসামাজিক উন্নতি, রেলপথ তৈরি, পণ্য পরিবহনের জন্য পৃথক করিডর নির্মাণ, পশ্চিমবঙ্গ বিহার এর যৌথ উদ্যোগে তৈরি হতে চলা ফুলবাড়ী বাঁধের অগ্রগতি, তপশিলি জাতি ও উপজাতির ভুক্ত পড়ুয়াদের জন্য মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক স্তরের কেন্দ্রীয় বৃত্তির জন্য কেন্দ্রীয় বরাদ্দ প্রদান, রাজ্যের পুলিশ বাহিনী আধুনিকীকরণ, কলকাতা ও হাজিপুরের ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অফ ফার্মেসিউটিক্যাল এডুকেশন এন্ড রিসার্চ এর জন্য জমি বরাদ্দ, মা ও শিশু র স্বাস্থ্য রক্ষায় গৃহীত প্রকল্পের মতো বিভিন্ন বিষয়ে আলোচনা হয়েছে।

তিনি বলেন দেশের স্বার্থকে সামনে রেখে পূর্বাঞ্চলীয় রাজ্য গুলির মধ্যে সমন্বয়ের ভিত্তিতে সার্বিক উন্নয়নের লক্ষ্যে এই বৈঠকে আলোচনা হয় । বৈঠকে  মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি, ওড়িশার অর্থমন্ত্রী শশীভূষন বেহেরা , ঝাড়খণ্ডের মুখ্যমন্ত্রী রঘুবর দাস, বিহারের উপমুখ্যমন্ত্রী সুশীল কুমার মোদী, স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী কিরণ রিজিজু প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

পূর্বাঞ্চলীয় পরিষদের বৈঠকের শেষে নবান্নে মুখ্যমন্ত্রীর ঘরে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রাজনাথ সিং তার সঙ্গে বেশ কিছুক্ষণ একান্ত বৈঠক করেন। রাজ্যের স্বার্থে সঙ্গে সংশ্লিষ্ট বিভিন্ন বিষয় নিয়ে ওই বৈঠকে আলোচনা হয়েছে বলে নবান্ন সূত্রে জানা গেছে।


শেয়ার করুন
  • 2
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সম্পর্কিত নিবন্ধ

Leave a Comment