জেলা 

সংগ্রামপুরে বিষমদে কান্ডে চারজনের যাবজ্জীবন

শেয়ার করুন
  • 1
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

বাংলার জনরব ডেস্ক : সংগ্রামপুর বিষমদ কাণ্ডে দোষী চারজনেরই যাবজ্জীবন কারাদণ্ডের নির্দেশ দিলেন আলিপুর আদালতের বিচারক। পাশাপাশি সাজাপ্রাপ্তদের ৫০ হাজার টাকা করে জরিমানাও করা হয়েছে।

সংগ্রামপুর বিষমদ কাণ্ডে গতকাল চারজনকে দোষী সাব্যস্ত করে আলিপুর আদালত। এই ঘটনায় শুধুমাত্র উস্তি থানা এলাকাতেই ১২ জনের বিরুদ্ধে চার্জশিট দিয়েছিল সিআইডি ঘটনায় আরও ১১ জনের নামে অন্যত্র চার্জশিট দেওয়া হয়েছিল। তার মধ্যে ১০ জনকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। এর মধ্যে গতকাল চারজনকে দোষীসাব্যস্ত করা হয়। আজ সাজা ঘোষণা করলেন আলিপুর আদালতের বিচারক।

২০১১ সালের ডিসেম্বর মাসের ঘটনা। বিষমদ খেয়ে দক্ষিণ ২৪ পরগনার সংগ্রামপুর ও তার সংলগ্ন গ্রামের প্রায় ১৭০ জন বাসিন্দার মৃত্যু হয়েছিল। রাজ্যের ফরেনসিক সায়েন্স ল্যাবরেটরি জানায়, মৃত্যুর কারণ মিথানল। এরপর CID পুরো ঘটনায় মোট ২৩ জনের বিরুদ্ধে চার্জশিট দেয়। যার মধ্যে ৯ জন পলাতক। পুলিশ যাদের গ্রেপ্তার করেছিল, তাদের মধ্যে ছিল মূল অভিযুক্ত নুর ইসলাম ফকির(খোঁড়া বাদশা)। এই খোঁড়া বাদশাই একাধিক চোলাই মদের ভাটি চালাত বলে জানা যায়। বাকিরা এই ব্যবসার সঙ্গে যুক্ত ছিল।

আলিপুর আদালতে অভিযুক্তদের তরফে সওয়ালকারী আইনজীবী আবুবককর ঢালি জানিয়েছিলেন , মোট চারজন নুর ইসলাম ফকির (খোঁড়া বাদশা), দুখে লস্কর, নজরুল লস্কর, খয়রুন্নাসা বিবিকে দোষী সাব্যস্ত করেছে আদালত। বাকি ছ’জনকে ছেড়ে দেওয়া হয়েছে। সাজা ঘোষণার পর আজকে তিনি বলেন, “এর বিরুদ্ধে হাইকোর্টে যাব আমরা “।

 

 


শেয়ার করুন
  • 1
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সম্পর্কিত নিবন্ধ

Leave a Comment