কলকাতা 

আর এসএস-সিপিএম একই মুদ্রার এপিঠ-ওপিঠ , রাস্তায় নেমে বিজেপি-র ডাকা বনধের মোকাবিলা করবে তৃণমূল : পার্থ

শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

বিশেষ প্রতিনিধি : উত্তর দিনাজপুরের ইসলামপুরে ছাত্র মৃত্যুর ঘটনায় আরএসএস-সিপিএম- কে আক্রমণ করলেন শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়। তিনি রবিবার বলেন, “আরএসএস-সিপিএম দু’জনেই একই পয়সার এপিঠ-ওপিঠ। যে দুই ছাত্র চলে গেল তার দায় কি বিজেপি ও আরএসএস নেবে ? এত কিছু কাজ থাকতেও টিভিতে এসে মুখ দেখানোর জন্য আন্দোলন করা কেন ? সব ব্যাপারেই কথা বলছেন। না জেনেই কথা বলছেন।”

বাম পরিষদীয় দলের নেতা সুজন চক্রবর্তীকে আক্রমণ করে পার্থবাবু বলেন, “আগে উনি বলুন যে, ওনার দল কেন কোর্টে গিয়ে শিক্ষক নিয়োগ প্রক্রিয়া আটকে রাখছে। আমি কোনও তর্কে যেতে চাই না। সাম্প্রদায়িক শক্তির বিরুদ্ধে লড়াই করছি আমরা। যাঁরা তলে তলে সাম্প্রদায়িক শক্তির বিরুদ্ধে হাত মেলাচ্ছেন, সেই শক্তিকে অক্সিজেন দিচ্ছেন, রসদ দিচ্ছেন তাঁরা আসলে দেশের সাম্প্রদায়িক শক্তিকে সাহায্য করছেন।”

উল্লেখ্য,২০ সেপ্টেম্বর ছাত্র ও পুলিশের সংঘর্ষে ইসলামপুরের দাড়িভিট হাইস্কুল চত্বর রণক্ষেত্রের চেহারা নিয়েছিল। সেইসময় গুলিবিদ্ধ হয় দুই ছাত্র। ওইদিনই হাসপাতালে মৃত্যু হয় ওই স্কুলের প্রাক্তন ছাত্র রাজেশ সরকারের। ২১ সেপ্টেম্বর উত্তরবঙ্গ মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালে মৃত্যু হয় তাপস বর্মণ নামে আরও এক ছাত্রর। এ প্রসঙ্গে পার্থবাবু বলেন, “ইতিমধ্যেই এই ঘটনায় ডিআইকে সাসপেন্ড করেছি। তাঁর কাছ থেকে রিপোর্ট চেয়েছি। ম্যানেজিং কমিটি যদি নিজের দায়িত্ব পালনে সক্ষম না হয় তাহলে সেই কমিটি আমি ভেঙে দেব। যারা দোষী তাঁরা কেউ ছাড় পাবেন না।”

ইসলামপুরের দুই ছাত্র মৃত্যুর ঘটনায় এবং সিবিআই তদন্তের দাবিতে ২৬ সেপ্টেম্বর বাংলা বনধের ডাক দিয়েছে রাজ্য BJP। এ প্রসঙ্গে পার্থবাবু বলেন, “২৬ সেপ্টেম্বর বনধ নামে নাটক করার চেষ্টা করছে BJP। তৃণমূলের সব সংগঠনের তরফে বনধের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ জানাব আমরা। আর সাধারণ মানুষের কাছে বনধ প্রত্যাখ্যান করার আবেদন জানাব। যানবাহন সব চলবে। তারা বিভাজনের রাজনীতি করে তাড়াতাড়ি ক্ষমতা দখলের চেষ্টা করছে। আমরা এর তীব্র নিন্দা করি।”


শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সম্পর্কিত নিবন্ধ

Leave a Comment