জেলা 

রাজেশের মৃত্যুর জন্য দায়ী পুলিশ-প্রশাসন : মুহাম্মদ সেলিম

শেয়ার করুন
  • 8
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

নিজস্ব প্রতিনিধি : ইসলামপুরে ছাত্রমৃত্যুর ঘটনার প্রতিবাদ করে সাংসদ মহম্মদ সেলিম বলেছেন, “এই ঘটনা ক্ষমাহীন অপরাধ। স্কুল কর্তৃপক্ষর উচিত ছিল স্থানীয় মন্ত্রী, বিধায়ক, অভিভাবক, শিক্ষা দপ্তর ও অন্য সবাইকে নিয়ে আলোচনায় বসে সমস্যা  মেটানো। তৃণমূল কংগ্রেস সরকার প্রতিটা কাজে পুলিশকে দিয়ে সমস্যা মেটানোর চেষ্টা করছে। পুলিশ গুলি ছাড়া কিছুই বোঝে না। লাঠি চালানো যেত। দোষী পুলিশের শাস্তি চাই।”

ছাত্রছাত্রীদের পথ অবরোধকে কেন্দ্র করে রণক্ষেত্র হয়ে ওঠে ইসলামপুর। উত্তেজনা ছড়ায় উত্তর দিনাজপুর জেলার ইসলামপুরের দাড়িভিট উচ্চ বিদ্যালয় চত্বরে। মৃত্যু হয়েছে এক ছাত্রের। নাম রাজেশ সরকার। অভিযোগ, পুলিশের গুলিতেই নাকি ওই ছাত্রের মৃত্যু হয়েছে। এই ঘটনার পর  ১২ ঘণ্টার উত্তর দিনাজপুর বনধের ডাক দিয়েছে বিজেপি।

ঘটনা প্রসঙ্গে রায়গঞ্জের সাংসদ বলেন, “মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় পুলিশকে দিয়ে ভোট লুট করাবেন, পঞ্চায়েতও দখল করাবেন, ছাত্রদেরও গুলি করবেন। এই ঘটনা নিয়ে কেউ উর্দু, বাংলা, হিন্দু মুসলমান, এপাড়া-ওপাড়া করার  চেষ্টা করছেন। ছাত্র ও শিক্ষকদের ব্যবহার করে বিভেদের রাজনীতি করেছে কেউ কেউ। গোটা দেশে এটাই চলছে। রাজ্যেও চলছে। পুলিশ মনে করছে গুলি চালিয়ে সমস্যার সমাধান হবে।” সাংসদের অভিযোগ, “আজকে স্কুলের প্রাক্তন ছাত্র  রাজেশ সরকার মারা গেল তার জন্য দায়ি পুলিশ-প্রশাসন। পুলিশ লাঠিচার্জ, কাঁদানে গ্যাসের শেল ফাটাতে পারত। তা না করে গুলি চালানো মেনে নেওয়া যায় না।”

 


শেয়ার করুন
  • 8
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সম্পর্কিত নিবন্ধ

Leave a Comment