জেলা 

ইসলামপুরে স্কুল ছাত্র-ছাত্রীদের পথ অবরোধকে কেন্দ্র করে ধুন্ধমারকান্ড, এক ছাত্রের মৃত্যু , পুলিশের গুলিতে মৃত্যু হয়েছে ছাত্রের এই দাবিতে ১২ ঘন্টার জেলা বনধ ডাকল বিজেপি

শেয়ার করুন
  • 2
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

নিজস্ব প্রতিনিধি : বিদ্যালয়ে বাংলা মাধ্যমের শিক্ষক দেওয়ার দাবিতে ছাত্র-ছাত্রীদের পথ অবরোধকে কেন্দ্র করে বড় ধরনের অশান্তির খবর পাওয়া গেছে উত্তর দিনাজপুরের ইসলামপুর থেকে । ছাত্র-ছাত্রীদের এই পথ অবরোধ পুলিশ তুলতে গেলে খন্ড-যুদ্ধ বেধে যায় । আর এই উত্তেজনাকে কেন্দ্র করে মৃত্য হয়েছে এক ছাত্রের । তার নাম রাজেশ সরকার । অভিযোগ উঠেছে ওই ছাত্র নাকি পুলিশের গুলিতে মারা গেছে । ঘটনার বিবরণে জানা গেছে , উত্তর দিনাজপুর জেলার ইসলামপুরের দাড়িভিট উচ্চ বিদ্যালয়টি বাংলা মাধ্যমের । সেখানে নাকি  উর্দু মাধ্যমের শিক্ষক দেওয়া হয়েছে । তারই প্রতিবাদ জানিয়ে এবং অবিলম্বে বাংলা মাধ্যমের শিক্ষক দেওয়ার দাবিতে পথ অবরোধ করেছিল ওই বিদ্যালয়ে ছাত্রছাত্রীরা । পুলিশ জোর করে অবরোধ তুলতে গেলে তাদের লক্ষ্য করে ইট পাথর ছোড়া হয়। পুলিশ পালটা রবারের গুলি ও টিয়ারগ্যাসের শেল ফাটিয়ে ছত্রভঙ্গ করে স্কুলের হাজার দুয়েক আন্দোলনকারী ছাত্রছাত্রীকে।

আগেও এই কারণে পথ অবরোধসহ নানা আন্দোলন করেছিল ছাত্রছাত্রীরা। তারপরও আজ ওই উর্দু শিক্ষকদের বিদ্যালয়ের কাজে যোগ দেওয়াতে নিয়ে আসে স্কুল কর্তৃপক্ষ। কিন্তু তা আন্দোলন করে আটকে দেয় ছাত্রছাত্রীরা। উর্দু বা সংস্কৃত শিক্ষক নয়, বাংলা মাধ্যমেরই অন্য বিষয়ের শিক্ষক চাওয়ার দাবিতে দিনভর চলে পথ অবরোধ। পুলিশ অবরোধ তুলতে গেলে তাদের সাথে সংঘর্ষ বেঁধে যায় ছাত্রছাত্রীদের।স্থানীয়সূত্রে জানা গেছে, ইসলামপুর ব্লকের দাড়িভিট উচ্চ বিদ্যালয়ে উর্দু মাধ্যমের কোনও ছাত্রছাত্রী নেই। তা সত্ত্বেও সম্প্রতি বিদ্যালয়ে তিনজন উর্দু মাধ্যমের শিক্ষককে নিয়োগ করা হয়।

ঘটনাস্থলে আসে ইসলামপুর থানার পুলিশ। ছাত্রছাত্রীদের দাবি, এর আগের আন্দোলনে বিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক তাদের আশ্বাস দিয়েছিলেন যে উর্দু শিক্ষককে বিদ্যালয়ে আনা হবে না। অথচ আজও ঘটনার পুনরাবৃত্তি ঘটে। ছাত্রছাত্রীরা জানিয়ে দিয়েছে তারা কিছুতেই বিদ্যালয়ে উর্দু শিক্ষকদের কাজে যোগ দিতে দেবে না। ছাত্রছাত্রীদের আন্দোলন বন্ধ করতে পুলিশকে কাঁদানে গ্যাসের শেল ফাটাতে হয়। এমনকী রাবারবুলেটও চালাতে হয়। এলাকায় বসানো হয়েছে পুলিশ পিকেট।এদিকে .ইসলামপুরে ছাত্রমৃত্যুর প্রতিবাদে আগামীকাল ১২ ঘণ্টা উত্তর দিনাজপুর বনধের ডাক দিল বিজেপি।

ছাত্রমৃত্যুর পরই জেলা কার্যালয়ে সাংবাদিক বৈঠক করেন বিজেপি-র জেলা সভাপতি শংকর চক্রবর্তী। তিনি বলেন, “ছাত্রদের শান্তিপূর্ণ আন্দোলন হচ্ছিল। পুলিশ তারমধ্যে গুলি চালায়। এর নিন্দা করছি। এর বিরোধিতা করে আগামীকাল ১২ ঘণ্টা বনধ পালন হবে উত্তর দিনাজপুরে।”

তিনি সাংবাদিকদের আরও বলেন, “ব্রিটিশযুগের বর্বরতা সামনে এসেছে। জালিয়ানওয়ালাবাগ হত্যাকাণ্ডের মতো এখানে ছাত্রদের গুলি মারা হয়েছে। বিজেপি-এর সর্বাত্মক প্রতিবাদ করবে। আগামীকাল তার পদক্ষেপ হিসেবে ১২ ঘণ্টা উত্তর দিনাজপুর জেলা বনধ ডাকা হয়েছে। পুলিশের ন্যক্কারজনক ঘটনার বিরুদ্ধে গর্জে  উঠুন।”

শেষ খবরে জানা গেছে, উত্তর দিনাজপুরের জেলা পরিদর্শককে সাসপেন্ড করে, সরিয়ে দিয়েছে বিকাশ ভবন । রাজ্যের শিক্ষামন্ত্রী জানিয়েছেন, সরকারকে অন্ধকারে রেখে শিক্ষক নিয়োগ হচ্ছিল । এজন্যই জেলা পরিদর্শককে সরিয়ে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে ।


শেয়ার করুন
  • 2
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সম্পর্কিত নিবন্ধ

Leave a Comment