কলকাতা 

বাগরি মার্কেটে আগুন লাগার জের ওষুধ সংকটের মুখে পড়তে চলেছে কলকাতা ও পাশ্ববর্তী জেলাগুলি

শেয়ার করুন
  • 5
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

নিজস্ব প্রতিনিধি : বাগরি মার্কেটে আগুন লাগার জেরে  শুধু নামী ব্রান্ডের ওষুধের সংকটই নয়, সাধারণমানের ওষুধেরও সংকট তৈরি হতে পারে। এমনই আশঙ্কা দেখা দিয়েছে চিকিৎসক মহলে । একইসঙ্গে বাগরি মার্কেটের ওষুধ ব্যবসায়ীদের মধ্যেও উদ্বেগ লক্ষ্য করা গেছে। আসলে বাগরি মার্কেটকে শহরের পাইকারি ওষুধের হাব বলা হয়। এখানে প্রায় ১৫টির বেশি স্টকিস্ট ও ডিস্ট্রিবিউটার রয়েছে। আগুন লাগার জেরে প্রায় পাঁচ থেকে দশ কোটি টাকার বেশি ওষুধপত্র ও চিকিৎসার সরঞ্জাম পুড়ে গেছে বলে ব্যবসায়ীরা আশংকা করছেন ।

বিশেষ সূত্রে জানা গেছে, শহরে পাঁচটি মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতাল ও স্থানীয় সব ওষুধের দোকানে এই মার্কেট থেকেই ওষুধ সরবরাহ করা হয়। এছাড়া কলকাতার নিকটবর্তী জেলা হাওড়া, হুগলি, বর্ধমান,উত্তর ও দক্ষিণ ২৪ পরগনার ওষুধ ব্যবসায়ীরা পাইকারি রেটে এখান থেকে ওষুধ নিয়ে গিয়ে জেলার দোকানে বিক্রি করেন। শুধু ওষুধ নয়। সার্জিকাল একাধিক সরঞ্জামও এখানে পাওয়া যায়। তাই বাগরি মার্কেটে এই ঘটনার জেরে বড় ধরনের সমস্যায় পড়বেন শহর ও শহরতলির মানুষ।

এপ্রসঙ্গে বাগরি মার্কেটের  এক ওষুধ ব্যবসায়ী বলেন, “ওষুধ কম্পানিগুলির স্টকিস্টদের হাব বলতে পারেন বাগরি মার্কেট। এককথায় মেডিসিনের ট্রেডিং হাব। আমার সার্জিকাল গুডসের দোকান আছে। যেভাবে আগুন লেগে ক্ষতি হল, তাতে  কিছু সময়ের জন্য হলেও এর প্রভাব পড়বে কলকাতা সমেত আশপাশের বেশ কয়েকটি জেলায়। বাজারের অবস্থা যা, তাতে মাস খানেক কেউ ব্য়বসা করতে পারবেন বলে মনে হয় না।” এর ফলে আগামী কয়েক মাস রাজ্যে ওষুধের সংকট তৈরি হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে বলে ওয়াকিবহাল মহল মনে করছেন।

 


শেয়ার করুন
  • 5
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সম্পর্কিত নিবন্ধ

Leave a Comment