কলকাতা 

বেসরকারি গ্রন্থাগারগুলিকেও এককালীন অর্থ সাহায্য করবে গ্রন্থাগার দপ্তর : সিদ্দিকুল্লাহ চৌধুরি  

শেয়ার করুন
  • 17
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সেখ ইবাদুল ইসলাম : মাওলানা সিদ্দিকুল্লাহ চৌধুরি গ্রন্থাগার ও জনশিক্ষা দপ্তরের দায়িত্ব নেওয়ার পর এই দপ্তরটির আমূল পরিবর্তন হয়েছে । মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের অনুপ্রেরণায় গ্রন্থাগার দপ্তর এখন রাজ্যের উন্নয়নে সারিতে এগিয়ে এসেছে । সমস্যা আছে ঠিকই , তার সমাধানের চেষ্টা চলছে বলে মন্ত্রী মাওলানা সিদ্দিকুল্লাহ চৌধুরি জানালেন । সমস্যার মধ্যে সবচেয়ে বড় সমস্যাটা হল ,লাইব্রেরী গুলিতে লাইব্রেরিয়ান নেই । বিশাল অংশের শূন্যপদ রয়েছে তা কেন পূরণ করছেন না, এই প্রশ্নের উত্তরে সিদ্দিকুল্লাহ চৌধুরি বলেন , খুব দ্রূত এই সমস্যার সমাধানে চেষ্টা চলছে । কিছুটা অবসরপ্রাপ্তদের দিয়ে সমাধানের চেষ্টা করা হয়েছে । আগামী দিনে আরও লোক নিয়োগের কাজ শুরু হবে ।

এক প্রশ্নের উত্তরে গ্রন্থগার মন্ত্রী জানান , আগামী দিনে শুধু সরকার পরিচালিত কিংবা সরকার অনুমোদিত লাইব্রেরিগুলিকেই সাজানো হবে না । মুখ্যমন্ত্রীর নির্দেশে বেসরকারি লাইব্রেরিগুলিকে আর্থিক সাহায্য দেবে সরকার । তিনি বলেন যুব দপ্তরের পক্ষ থেকে যেমন ক্লাবগুলিকে আর্থিক সাহায্য দেওয়া হয় । একইভাবে লাইব্রেরী দপ্তরও রাজ্যের মধ্যে ছড়িয়ে ছিটিয়ে থাকা ছোট ছোট লাইব্রেরিগুলিকে সাহায্য করবে । অবশ্য এটা আগেও ছিল সরকারের পক্ষ থেকে বেসরকারি উদ্যোগী পরিচালিত  লাইব্রেরিগুলিকে সাহায্য করা হত । কিন্ত সেটা ছিল বড় বেসরকারি লাইব্রেরি । এই সাহায্য পেতে গেলে আগে ৫ বছরের অডিট রিপোর্ট সরকারের কাছে পেশ করতে হত ।

মুখ্যমন্ত্রী নির্দেশে যেকোন বেসরকারি লাইব্রেরি এক বছরের অডিট রিপোর্ট জমা করতে পারলে সাহায্যের জন্য আবেদন করতে পারবে । নিয়মের এই পরিবর্তনের ফলে আগামী দিনে অনেক বেশি গ্রন্থগারকে সাহায্য দিতে পারবে বলে সিদ্দিকুল্লাহ চৌধুরি প্রত্যাশা ব্যক্ত করেন। তিনি বলেন , বামেদের আমলেও এই দপ্তর ছিল তারা কী কাজ করত তা মানুষ জানতে পারত না । আমরা মা-মাটি- মানুষের সরকার সাধারণ মানুষের স্বার্থে কাজ করি । আর এটা করি বলে এবছরই রাজ্যে ১৪৫০ টি লাইব্রেরিকে বিভিন্ন ক্যাটাগেরীতে ভাগ করে কাউকে ২০/২৫/৩০ হাজার টাকা করে সাহায্য দেওয়া হয়েছে । আগামী দিনে এই আর্থিক বরাদ্দের পরিমাণ যেমন বাড়বে তেমনি লাইব্রেরির সংখ্যাও অনেকটাই বৃদ্ধি পাবে বলে মন্ত্রী সিদ্দিকুল্লাহ চৌধুরি জোর গলায় বলেন ।


শেয়ার করুন
  • 17
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সম্পর্কিত নিবন্ধ

Leave a Comment