দেশ 

স্কুল ক্যাম্পাসেই ছাত্রীরা গণ ধর্ষনের শিকার , আর ধর্ষণ করলেন শিক্ষকরা নৃশংস ও অমানবিক এই ঘটনায় চাঞ্চল্য দেশজুড়ে

শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

বাংলার জনরব ডেস্ক: স্কুল ক্যাম্পাসেই ছাত্রীরা গণ ধর্ষনের শিকার । আর ধর্ষণ করলেন শিক্ষকরা। তবে একজন কিংবা দুজন নয়, নয় জন শিক্ষক এই কাজে যুক্ত বলে অভিযোগ।এই নক্কারজনক ঘটনাটি ঘটেছে রাজস্থানের (Rajasthan) আলয়ার জেলায়। ইতিমধ্যেই অভিযুক্তদের গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

এক নির্যাতিতার বাবা পুলিশের দ্বারস্থ হতেই প্রকাশ্যে আসে চাঞ্চল্যকর তথ্য। অভিযোগকারীর মেয়ে দশম শ্রেণির ছাত্রী। জানা গিয়েছে, বেশ কিছুদিন ধরে ওই নাবালিকা স্কুল যেতে অনিহা প্রকাশ করছিল। তা নিয়ে স্বাভাবিকভাবেই চিন্তিত ছিলেন অভিভাবকরা। নাবালিকাকে চেপে ধরেন বাবা-মা। জিজ্ঞেস করা হয়, কেন সে স্কুলে যেতে চায় না। সেই সময়ই প্রকাশ্যে আসে চাঞ্চল্যকর তথ্য।

নাবালিকা জানান, একবছরেরও বেশি সময় ধরে তাকে গণধর্ষণ করেছে স্কুলের শিক্ষকরা। তাতে শামিল ছিলেন প্রিন্সিপালও। অভিযোগ, স্কুলের মহিলা শিক্ষকরা সহযোগিতা করতেন অভিযুক্তদের। ঘটনার ভিডিও করতেন তারা। শুধুমাত্র ওই নাবালিকা নয়, আরও একাধিক পড়ুয়া ওই শিক্ষকদের লালসার শিকার। তাদের মধ্যে রয়েছে তৃতীয়, চতুর্থ, ষষ্ঠশ্রেণির ছাত্রীরাও। কাউকে বিষয়টি জানানো হলে তাদের খুনের হুমকি দেওয়া হয়েছিল বলে অভিযোগ নির্যাতিতাদের।

এক নির্যাতিতা জানিয়েছে, এক মহিলা শিক্ষিকাকে গোটা বিষয়টি সে জানিয়েছিল। কিন্তু সহযোগিতার পরিবর্তে সেও বিষয়টি কাউকে না জানানোর পরামর্শ দেন। পরবর্তীতে ওই শিক্ষিকার উপস্থিতিতে তার উপর যৌন নির্যাতন করা হয়।

যে নির্যাতিতার বাবা পুলিশের দ্বারস্থ হয়েছেন তাঁর অভিযোগ, প্রথমে স্কুলের প্রিন্সিপালকে জানানো হয়েছিল। তিনি অভিযোগ মানতে চাননি বরং পুলিশের দ্বারস্থ হলে খুনের হুমকি দেন। চোখ রাঙানি উপেক্ষা করেই পুলিশে অভিযোগ দায়ের করেন তিনি। গ্রেপ্তার করা হয়েছে অভিযুক্তদের। তাদের বিরুদ্ধে পকসো ধারায় মামলা করা হয়েছে। সৌজন্যে ডিজিটাল সংবাদ প্রতিদিন।

 


শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সম্পর্কিত নিবন্ধ