কলকাতা 

কলকাতার এসএসকেএম হাসপাতালের মুকুটে আরেকটি পালক সংযোজিত হলো’সেন্টার অফ এক্সেল্যান্স’ বা ‘উৎকর্ষ কেন্দ্র’ হিসাবে ঘোষণা করল রাজ্য সরকার

শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

বাংলার জনরব ডেস্ক : কলকাতার এসএসকেএম হাসপাতালে মুকুটে আরেকটি পালক সংযোজিত হলো।এই সরকারি হাসপাতাল তথা মেডিক্যাল কলেজকে ‘সেন্টার অফ এক্সেল্যান্স’ বা ‘উৎকর্ষ কেন্দ্র’ হিসাবে ঘোষণা করল রাজ্য সরকার। শনিবারই এই মর্মে বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা হয়েছে। অর্থদপ্তর থেকে অনুমতিও মিলেছে বলে খবর।

বস্তুত, রাজ্যের মধ্যে একমাত্র এসএসকেএম হাসপাতালকেই এমন বিশেষ মর্যাদা দেওয়া হল। স্বাস্থ্যদপ্তরের শীর্ষকর্তাদের অভিমত, এমন আনুষ্ঠানিক স্বীকৃতির ফলে চিকিৎসার যে কোনও শাখার কোনোও বিষয়ে মৌলিক গবেষণার (Reasearch) সুযোগ থাকবে। সেই গবেষণায় সরকারি আনুকূল্য মিলবে। মিলবে উন্নততর গবেষণার জন্য অত্যাধুনিক যন্ত্র ও গবেষকের সহায়তা। এসএসকেএম হাসপাতালে মোট ৩৮টি বিভাগ রয়েছে। প্রতিটি বিভাগে আউটডোর চিকিৎসা (OPD)এবং হাসপাতালে ভরতি করে রোগীদের সেবার ব্যবস্থা রয়েছে। এছাড়াও আটটি অ্যানেক্স বিভাগ চলছে। যেগুলি পৃথকভাবে গবেষণা ও চিকিৎসার ব্যবস্থা করা হয়েছে।

মাস খানেক আগেই এসএসকেএম হাসপাতালের সঙ্গে যৌথভাবে ক্যানসার (Cancer) চিকিৎসার চুক্তি করেছে টাটা মেমোরিয়াল। সেই কাজ ইতিমধ্যে অনেকটাই এগিয়েছে। এছাড়াও রাজ্যের একমাত্র পেরিনেটলজি বা শিশুর জন্মের পর থেকে ছ’বছর পর্যন্ত চিকিৎসার ব্যবস্থা গড়ে উঠবে। সেই কাজও চলছে। ইতিমধ্যে পেরিনেটলজির আউটডোর চালু হয়েছে। আধুনিক চিকিৎসা ও গবেষণার এমন সম্ভাবনাকে অগ্রাধিকার দিয়েই রাজ্য স্বাস্থ্যদপ্তর এই সরকারি হাসপাতালকেই ‘উৎকর্ষ কেন্দ্র’ (Centre of excellence) হিসেবে ঘোষণা করল। এসএসকেএমের সাফল্যে উচ্ছ্বসিত এখানকার চিকিৎসক, স্বাস্থ্যকর্মীরা।

এর ফলে চিকিৎসক ও গবেষকদের কাজে আরও উৎসাহ বাড়বে বলেই মনে করেন এসএসকেএমের অধিকর্তা ডাক্তার মণিময় বন্দ্যোপাধ্যায়।


শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সম্পর্কিত নিবন্ধ