Featured Video Play Iconবিনোদন, সংস্কৃতি ও সাহিত্য 

আজ বিশ্ব নবী দিবস (সা.) সাম্য-মৈত্রী-ধর্মনিরপেক্ষতা আদর্শ বাস্তবায়নে হজরত মুহাম্মদ(সা.) বিশ্বে নজীর তৈরি করে গেছেন, বাংলার জনরব- এর বিশেষ আলোচনায় বললেন দুই বাংলার বিদগ্ধ দুই শিক্ষাবিদ

শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সেখ ইবাদুল ইসলাম : হজরত মুহাম্মদ(সা) -এর জীবনী কোনো দেবতার জীবনী নয় , প্রথম থেকে শেষ পর্যন্ত ছিল তা গভীর মানবোচিত । এহেন মহাপুরুষের জীবন নিয়ে আলোচনা করার ক্ষমতা ও যোগ্যতা কোনোটাই আমাদের নেই । তবু আমরা সীমাবদ্ধ ক্ষমতার মধ্যে থেকে সামান্য কিছু করার চেষ্টা করেছি । গত রবিবার সন্ধ্যায় বাংলার জনরব ইউটিউব চ্যানেলে আমরা আলোচনার জন্য বেছে নিয়েছিলাম একটি  বিষয় । বিষয়টি হলো : শাসক হিসাবে হজরত মুহাম্মদ(সা)। এই নিয়ে আলোচনায় অংশ নেন বিশ্বভারতী বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক জনাব সিরাজুল ইসলাম , বাংলাদেশের রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক মাহফুজুর রহমান আখন্দ ।

এই আলোচনায় অংশ নিয়ে দুই বিদগ্ধ পন্ডিত নবীজি (সা.) এর জীবনের বিভিন্ন দিক তুলে ধরেন । শাসক হিসাবে হযরত মুহাম্মদ(সা) যে রাজধর্ম পালন করেছিলেন তার নির্দিষ্ট বিভিন্ন দিক দুই বক্তা তুলে ধরেন । তিনি একমাত্র মহাপুরুষ এবং শাসক যিনি প্রথম সনদ রচনা করেছিলেন । সেই সনদে সংখ্যালঘু ও সংখ্যাগুরু উভয় সম্প্রদায়ের মানুষদের সমানাধিকার দিয়েছিলেন । তিনিই একমাত্র শাসক যিনি সব প্রজাকে একই আইনে শাসনের মধ্যে আনতে পেরেছিলেন । তিনিই প্রথম শাসক যিনি সম্রাটের জন্য যে আইন সেই একই আইন সাধারণ মানুষের জন্য করেছিলেন । তিনি একদিকে সাম্য-মৈত্র এবং ধর্মনিরপেক্ষতার মূর্ত প্রতীক হিসাবে নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করেছিলেন ।

সমগ্র বিশ্বজুড়ে ইসলাম বিদ্বেষ যে চলছে সে নিয়ে দুই অধ্যাপক এদিন বলেন, একথা ঠিক ইসলামের বিরুদ্ধে প্রচার চালানো হচ্ছে । এর পেছনে রয়েছে কিছু আবু জেহেল , আবু লাহাবদের মতো মানুষ । আসলে নবীজির আদর্শ-নীতি বাস্তবায়ন হলে এসব মানুষদের অসুবিধা হবে । সাম্প্রতিক বাংলাদেশের ঘটনাবলীর কথা এই অনুষ্ঠানে উঠে আসে সেখানে দুই বক্তা বলেন, বাংলাদেশে যা হয়েছে তা নবীর আদর্শ-নীতির পরিপন্থী । আসলে নবীজির জীবনের দিকগুলিকে আমরা ভালভাবে মানুষের কাছে তুলে ধরতে পারিনি। সেই কারণেই ইসলামকে কাঠগড়ায় তোলা হচ্ছে। এটা আমাদের সীমাবদ্ধতা, ইসলামের নয় বলে মন্তব্য করেন দুই অধ্যাপক ।

এদিনের আলোচনার বিষয়বস্তু বাংলার জনরব এর ইউটিউব চ্যানেলে সংরক্ষিত রয়েছে। আগ্রহীরা তা দেখে নিতে পারেন । একই সঙ্গে এই খবরের সঙ্গে লিংকটা জুড়ে দেওয়া হলো আগ্রহীরা দেখে নিতে পারেন । ভাল লাগলে লাইক করবেন, শেয়ার করবেন , সাবসক্রাইব করবেন।


শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সম্পর্কিত নিবন্ধ