কলকাতা 

Illegal Coal Mining: বেআইনি কয়লা খাদান মামলায় আসানসোল-দুর্গাপুরের পুলিশ কমিশনারকে স্বশরীরে হাজির হওয়ার নির্দেশ কলকাতা হাইকোর্টের

শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

বাংলার জনরব ডেস্ক : আদালতের নির্দেশ অমান্য করে বেআইনি কয়লা খাদান চালানোর জন্য কলকাতা হাইকোর্ট ক্ষোভ ব্যক্ত করেন । এই মামলায় এবার  আসানসোল দুর্গাপুরের পুলিশ কমিশনারকে তলব করল কলকাতা হাই কোর্ট। আগামী ১১ নভেম্বর পরবর্তী শুনানির দিন তাঁকে হাজির থাকতে হবে বলে জানিয়েছে আদালত। এই মামলায় একটি সিল করা খামে আদালতে রিপোর্ট জমা দিয়েছে কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থা সিবিআই। রিপোর্ট দেওয়া হয়েছে রাজ্যের তরফেও।

এর আগে এই মামলায় রাজ্যের পশ্চিমাঞ্চলের আইজি-কে তলব করেছিলেন ভারপ্রাপ্ত প্রধান বিচারপতির রাজেশ বিন্দলের ডিভিশন বেঞ্চ। বুধবার ভার্চুয়াল মাধ্যমে শুনানি প্রক্রিয়ায় হাজির থেকে আইজি আদালতকে জানান, ওই কয়লা খাদান তাঁর এক্তিয়ারের এলাকার মধ্যে পড়ে না।

২০১৩ সালে এই মামলা দায়ের হওয়ার পর আদালত খাদান বন্ধ করার নির্দেশ দিয়েছিল। তা সত্ত্বেও কারবার চলতে থাকায় প্রশাসনের উপর ক্ষুব্ধ প্রধান বিচারপতি বলেন, ‘‘এতদিন ধরে কি ঘুমাচ্ছিলেন! কেন পদক্ষেপ হয়নি? কেন আদালতের দৃষ্টি আকর্ষণ করেননি।’’ তার পরই আসানসোল দুর্গাপুরের পুলিশ কমিশনারকে তলব করল হাই কোর্ট।

পশ্চিম বর্ধমানের আসানসোল, রানীগঞ্জ, বাঁকুড়া, পুরুলিয়া এবং বীরভূমের একাংশে দীর্ঘদিন ধরেই কয়লা, বালি, পাথরের বেআইনি খাদানের রমরমা চলছে। বিষয়টি নিয়ে আইনজীবী পার্থ ঘোষ একটি জনস্বার্থ মামলা করেছিলেন। সেই মামলার প্রেক্ষিতে আদালত বেআইনি খাদানের কারবার বন্ধ করার নির্দেশ দিয়েছিল।


শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সম্পর্কিত নিবন্ধ