দেশ 

বিহারে বিজেপি ২০ টি, জেডিইউ ১২টি,এলজেপি ৫ টি আসনে ২০১৯-এর লোকসভায় লড়াই করবে,নীতিশের সঙ্গে জোট করে বিজেপি স্বস্তিতে

শেয়ার করুন
  • 7
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

বিশেষ প্রতিবেদক : ২০১৯-এর ফাইনাল লড়াই শুরু হতে এখনও বেশ কয়েক মাস বাকি আছে । ইতিমধ্যেই বিরোধী দলগুলি জোট বাধার প্রক্রিয়া শুরু করলেও তা এখনও তেমনভাবে দানা বাধেনি। আজ ৩০ আগস্ট দিল্লিতে বিরোধী দলগুলির বৈঠকে বসার কথা ছিল কিন্ত ডিএমকে-র প্রয়াত নেতা করুণানিধির স্মরণসভা থাকার কারণে শেষ মুহুর্তে এই বৈঠক বাতিল হয়েছে । জানা গেছে, সেপ্টেম্বর প্রথম সপ্তাহের মধ্যেই মোদী বিরোধী জোটের বৈঠক হওয়ার সম্ভাবনা আছে। এদিকে, বিজেপিও বসে নেই তারা সব রকমভাবে চেষ্টা করছে যাতে দ্বিতীয় নরেন্দ্র মোদীর নেতৃত্বে এনডিএ জোট ক্ষমতায় আসতে পারে। সেজন্য পুরোনা বন্ধুদের সঙ্গে জোট করার চেষ্টা চালাচ্ছে । তাদের এই প্রচেষ্টা অনেকটাই সফল হয়েছে । বিহারে নীতিশ কুমার ফের বিজেপি জোটে যোগ দিয়েছে ।

জানা গেছে, আগামী লোকসভা ভোটেও এনডিএ-র ছাতার তলায় থেকেই লড়বে নীতীশের দল। ইতিমধ্যে  বিজেপির সঙ্গে আসন সমঝোতা হয়ে গেছে বলে খবর।বিশেষ সূত্রে জানা গেছে, ২০১৯ লোকসভা ভোটে বিজেপি বিহারের ২০টি আসনে, জেডিইউ ১২টি আসনে ও লোক জনশক্তি পার্টি ৫টি আসনে লড়বে। রাষ্ট্রীয় লোক ক্ষমতা পার্টি (আরএলএসপি) যদি এই জোটে নাম লেখায় তাহলে বিজেপির কোটা থেকে ২টি আসন তাদের দেওয়া হবে। আরএলএসপি নেতা উপেন্দ্র কুশওয়াহা সম্প্রতি যে ইঙ্গিত দিয়েছেন তাতে এনডিএ জোটে থেকেই যে তাঁরা লড়বেন তার স্পষ্ট বার্তা রয়েছে।

তিনি বলেছেন, নরেন্দ্র মোদীকে যাতে দ্বিতীয় সুযোগ দেওয়া হয় সেজন্য তিনি জোর প্রচার চালাবেন। বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি অমিত শাহ ও জেডিইউ প্রধান নীতীশ কুমারের মধ্যে আলোচনা করেই আসন সমঝোতা হয়েছে বলে দলীয় সূত্রে খবর। খুব শীঘ্রই বিহার সফরে আসবেন অমিত শাহ। তখনই সবকিছু চূড়ান্ত হবে।ঘটনা হলবিহারে মোট ৪০টি আসন। ঠিক হয়েছে দুই দলই সমান আসন পাবে ।এক্ষেত্রে আপাতত বিজেপির হাতে ২০টি আসন থাকলেও সেখান থেকে অন্য দলগুলি ভাগ পাবে। এক্ষেত্রে জেডিইউ-র অভিযোগ করার জায়গা থাকবে না। বিরোধীরা যেখানে জোট তৈরি করার জন্য এখনও সফল কোনবৈঠক করতে পারেনি,  সেখানে বিজেপি উদ্যোগী হয়ে বিহারে জোটের আসন সমঝোতা করে ফেলল। এটা  নিঃসন্দেহে আগামী লোকসভা নির্বাচনে বিজেপিকে অনেকটাই স্বস্তি দেবে।


শেয়ার করুন
  • 7
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সম্পর্কিত নিবন্ধ

Leave a Comment