জেলা 

পঞ্চায়েতকে বিরোধী শূন্য করার মাসুল, প্রধানপদ নিয়ে শাসকদলের গোষ্ঠী সংঘর্ষে মৃত এক

শেয়ার করুন
  • 13
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

নিজস্ব প্রতিনিধি :  পঞ্চায়েতকে বিরোধী শূন্য করার পরিকল্পনা যে কতটা মর্মান্তিক হতে পারে তার নজীর পাওয়া গেল রায়গঞ্জে। উত্তর দিনাজপুরের ইসলামপুর ব্লকের ১ নম্বরপণ্ডিতপোঁতা গ্রাম পঞ্চায়েতের মোট আসন ১১টি । নির্াবচনের পর এই এই পঞ্চায়েতে ৬টি আসনে তৃণমূল ও ৫টি আসনে নির্দল প্রার্থীরা জয়লাভ করে । পঞ্চায়েতকে বিরোধী মুক্ত করতে হবে এই লক্ষ্যে তৃণমূল নেতৃত্ব জয়ী নির্দল পঞ্চায়েত সদস্যদের তৃণমূল যোগ দিতে বাধ্য করে।

আজ বোর্ড গঠনের সময় তৃণমূল ও সদ্য তুণমূলে যোগ দেওয়া ছে।নির্দল সদস্যদের মধ্যে সংঘর্ষ বেধে যায়। অভিযোগ, উভয়পক্ষের সমর্থকরা একে অপরকে লক্ষ্য করে বোমাবাজি ও ইট ছোড়ে। সংঘর্ষে মৃত্যু হয় লাল মহম্মদের।  খবর পেয়ে ঘটনাস্থানে পৌঁছায় পুলিশ ও র‌্যাফ। তারা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। এলাকায় পুলিশ পিকেট বসানো হয়েছে। এখনও পর্য়ন্ত ৬ জনকে আটক করা হয়েছে।

আর এনিয়ে সংঘর্ষ বাধে । আসলে সবাই যখন একই দলের সদস্য তাহলে প্রধান কে হবেন ? তা নিয়েই দেখা দেয় গোষ্ঠীদ্বন্দ্ব । আর এই গোষ্ঠীদ্বন্দ্বের শিকার হয়ে অকালে চলে যেতে হল লাল মহম্মদকে। পঞ্চায়েত বোর্ড গঠনকে কেন্দ্র করে শাসক দলের পঞ্চায়েত সদস্য খুন হলেন শাসক দলের অন্য গোষ্ঠীর হাতে । এর চেয়ে চরম বিড়াম্বনা আর কী হতে পারে ? শুধু তাই নয় সংঘর্ষে দু পক্ষেরআহত হয়েছেন প্রায় ১০জন। তাঁদের ইসলামপুর মহকুমা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

 


শেয়ার করুন
  • 13
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সম্পর্কিত নিবন্ধ

Leave a Comment