কলকাতা 

ভোট পরবর্তী হিংসা নিয়ে জাতীয় মানবাধিকার কমিশনের রিপোর্ট ‘পক্ষপাতদুষ্ট’ হাইকোর্টে জানাল রাজ্য

শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

বাংলার জনরব ডেস্ক : ভোট পরবর্তী হিংসা নিয়ে জাতীয় মানবাধিকার কমিশন যে রিপোর্ট হাইকোর্টে জমা দিয়েছিল তার পাল্টা হলফনামা জমা দিল রাজ্য সরকার । এই হলফনামায় কড়া ভাষায় বলা হয়েছে জাতীয় মানবাধিকার কমিশন  নিরপেক্ষ তদন্ত নয়, রাজ্যকে অপদস্থ করাই লক্ষ্য কমিশন এই রিপোর্ট দিয়েছে । তাদের লক্ষ্য রাজ্যের ভাবমূর্তিকে কলুষিত করা তাই পক্ষপাতদুষ্ট রিপোর্ট তৈরি করা হয়েছে।

এই হলফনামায় অভিযোগ করা হয়েছে, মানবাধিকার কমিশনের যে সব সদস্য তদন্ত করতে এসেছিলেন তাঁদের সঙ্গে বিজেপি যোগ স্পষ্ট রয়েছে । রাজীব জৈন, আতিফ রশিদ এবং রজুলবেন এল দেসাই, যাঁরা ঘোষিত ভাবেই বিজেপির নেতা । তাঁদের নিয়োগপ্রক্রিয়া নিয়ে প্রশ্ন তুলেছে রাজ্য। রাজ্যের অভিযোগ, কমিশনের রিপোর্টের সঙ্গে বাংলার বাস্তবিক কোনও মিল নেই। বরং নেতিবাচক রিপোর্ট তৈরি করতেই কমিশনকে পাঠানো হয়েছিল। কী অভিযোগ আনা হবে, কার বিরুদ্ধে অভিযোগ আনা হবে, আগে থেকেই সব ঠিক ছিল।

রাজ্যের দাবি, ভোটের পর হিংসার খবর পাওয়ামাত্রই পদক্ষেপ করেছে প্রশাসন। অনেক ক্ষেত্রে অভিযোগ দায়ের করতেই হয়নি। স্বতঃপ্রণোদিত হয়ে পুলিশই পদক্ষেপ করেছে। তা সত্ত্বেও কমিশন যে রিপোর্ট তুলে ধরেছে, তাতে রাজ্যের পুলিশ এবং আমলাদের ভাবমূর্তি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে বলে হলফনামায় জানিয়েছে রাজ্য।

‘ভোট পরবর্তী হিংসা’র অভিযোগ খতিয়ে দেখে বিশদ রিপোর্ট তৈরি করতে কমিশনকে নির্দেশ দিয়েছিল হাই কোর্ট। কিন্তু কমিশন কোন অধিকারে সিবিআই তদন্তের দাবি জানায়, সিট গঠন করে তদন্তের সুপারিশ করে এবং তদন্ত রাজ্যের বাইরে সরিয়ে নিয়ে যাওয়ার সুপারিশ করে, তা নিয়েও রাজ্য হলফনামায় প্রশ্ন তুলেছে।


শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সম্পর্কিত নিবন্ধ