জেলা 

পঞ্চম শ্রেনির সর্বকনিষ্ঠ নাগরিককে দিয়ে জাতীয় পতাকা উত্তোলন করিয়ে নজীর স্থাপন করল মাওলানা আজাদ অ্যাকাডেমি

শেয়ার করুন
  • 38
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

বিশেষ প্রতিবেদক : অভিনব উদ্যোগ বললে কম বলা হবে, বলা যেতে পারে নতুন আবিস্কার, সিস্টেমের পরিবর্তন করে দেশের সামনে নজীর  স্থাপন করলেন ওঁরা । ওঁরা বলতে আসলে হাওড়া জেলার বাগনান থানার মাওলানা আজাদ আকাডেমি কর্তাদের কথা বলা হচ্ছে । এদেশের সিস্টেমে রয়েছে স্বাধীনতা দিবসের দিনে জাতীয় পতাকা উত্তোলন করবেন প্রবীণ নাগরিক বা বিশিষ্ট ব্যক্তিরা ।

 

আর স্কুল বা কলেজে এই অধিকার শুধু মাত্র প্রধান শিক্ষক বা অধ্যক্ষেরই আছে । সহ শিক্ষক বা সহ অধ্যাপকদের পতাকা তুলতে তেমন দেখা যায় না। কিন্ত যখন কোন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে স্বাধীনতা দিবসের দিন জাতীয় পতাকা তোলার দায়িত্ব জুনিয়র নাগরিককে দেওয়া হয় তখন সেই সিদ্ধান্তকে কুর্নিস না জনিয়ে পারা যায় না।

আর এরকমই এক নজীর বিহীন ঘটনার সাক্ষী হয়ে রইল মাওলানা আজাদ আকাডেমি।  এই আকাডেমির ছাত্র বীরভূমের একরামূল পঞ্চম শ্রেনির ছাত্র । সে বা তার পরিবার কেউ কোনদিন ভাবেনি এই ছাত্রকে দিয়ে ৭২ তম স্বাধীনতা দিবসের দিন জাতীয় পতাকা তোলানোর সিদ্ধান্ত নেবেন আকাডেমির কর্ণধার আবদুল মুজিদ সাহেব। তিনি করলেন । আসলে মুজিদ সাহেবরা দেশের ভাবী নাগরিকদের মধ্যে আরও বেশি করে জাতীয়তাবাদ ও দেশপ্রেম জাগাতে সক্রিয় হয়েছেন। সেই জন্যই এই অভিনব উদ্যোগ বলে মুজিদ সাহেব জানালেন। এদিনের সভায় বিশিষ্টদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন প্রাক্তন প্রধান শিক্ষক আবদুর রউফ,বিশিষ্ট সমাজসেবী বাউজুল হোসেন, ক্যাপ্টেন হাবিবুর রহমান প্রমুখ। এদিনের সভায় সভাপতিত্ব করেন আকাডেমির চেয়ারম্যান আবদুল মুজিদ । সমগ্র অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করেন আকাডেমির শিক্ষক জনাব ফারুক হোসেন।


শেয়ার করুন
  • 38
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সম্পর্কিত নিবন্ধ

Leave a Comment