কলকাতা 

‘অমিত শাহের বাবার সব নথি আছে তো? আমার বাবা-মায়ের তো নেই। ’ এনআরসি ইস্যুতে বিজেপি সভাপতি অমিত শাহকে তোপ রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী বন্দ্যোপাধ্যায়ের

শেয়ার করুন
  • 11
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

নিজস্ব প্রতিনিধি : মঙ্গলবার নাগরিকপঞ্জি (এনসিআর) নিয়ে সাংবাদিক বৈঠকে বিজেপি সর্বভারতীয় সভাপতি অমিত শাহকে সরাসরি আক্রমণ করলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।‘অমিত শাহের বাবার সব নথি আছে তো? আমার বাবা-মায়ের তো নেই। ’ এনআরসি ইস্যুতে এমন কড়া ভাষা আক্রমণ করলেন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী বন্দ্যোপাধ্যায়।

মঙ্গলবার এনআরসি ইস্যুতে বেশ কিছু নথি নিয়ে সাংবাদিক বৈঠক ডাকেন মুখ্যমন্ত্রী। সেখানেই মুখ্যমন্ত্রী বলেন, ‘স্বাধীনতার ৭২ বছর পর কেন এসব কথা হচ্ছে? সবার তো বাবা-মায়ের নথি সঙ্গে থাকে না। অমিত শাহের কাছে তাঁর বাবার সব নথি আছে তো? আমার তো নেই। আমার বাবা-মায়ের কারোর নথিই আমার কাছে নেই।’ তিনি বলেন, আগেকার দিনে অনেকেই জন্মনথি রাখতেন না। হয়তো সে সময় এ সবের গুরুত্বও ততটা ছিল না। ফলে তেমন কারও কাছ থেকে ওই সমস্ত নথি দাবি করা হলে কী করে দেবেন? অসমে প্রচুর মানুষের নাম নাগরিকপঞ্জি থেকে বাদ দেওয়া হয়েছে। কেন বাদ দেওয়া হল? যাঁদের নাম বাদ পড়ল, তাঁরা কি প্রত্যেকেই অনুপ্রবেশকারী? আসলে বিজেপি গায়ের জোরে সবইকে অনুপ্রবেশকারী বানিয়ে দেওয়া হচ্ছে । মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় জানান, বিজেপি দাবি করেছে কোনও ভারতীয়র নাম বাদ যায়নি। বাস্তব কিন্তু অন্য কথা বলছে। পরিসংখ্যান দিয়ে মুখ্যমন্ত্রী বলেন, ‘১৩ লক্ষ মুসলিম বাঙালির নাম বাদ গিয়েছে। ২৫ লক্ষ হিন্দু বাঙালির নাম বাদ গিয়েছে। ৪০ লক্ষের মধ্যে বাংলাভাষী হলেন ৩৮ লক্ষ।’

মুখ্যমন্ত্রী বলেন, ‘তালিকা থেকে স্বাধীনতা সংগ্রামী পরিবারের নামও বাদ গিয়েছে। গায়ের জোরে অনেককেই অনুপ্রবেশকারী বানাচ্ছে বিজেপি। প্রতিবাদ করলেই ডিটেনশন ক্যাম্পে পাঠিয়ে দেওয়া হচ্ছে। উদ্বাস্তু তৈরির সময়ে কোথায় ছিল বিজেপি? ভারতীয় নাগরিকদের হেনস্থা করা হচ্ছে।‘বৈধ প্রমাণ দিতে না পারলে, বাংলাদেশি ভারত ছাড়। এনআরসি নিয়ে দেশজোড়া বিতর্কের মধ্যেই জুলাই মাসে নিজের অবস্থান স্পষ্ট করেছিল বিজেপি- অভ্যন্তরীণ নিরাপত্তাকে ঢাল করে সংসদের ভিতরে ও বাইরে অমিত শাহের বক্তব্যেই স্পষ্ট,অনুপ্রবেশকারীদের তাড়িয়েই ছাড়া হবে। আর তখন থেকেই বিজেপির বক্তব্যের কড়া ভাষায় প্রতিবাদ জানাচ্ছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

রাজনৈতিক প্রতিদ্বন্দ্বিতা তো বটেই, এনআরসি ইস্যুতে এবার বিজেপিতৃণমূল দ্বৈরথ তুঙ্গে। অসমে জাতীয় নাগরিকপঞ্জি প্রকাশ করে বিজেপি দেশের মধ্যে গৃহযুদ্ধের পরিস্থিতি তৈরি করেছে বলেও এর আগে কড়া আক্রমণ করেছিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। মঙ্গলবার সাংবাদিক বৈঠক ডেকে নথি দেখিয়ে আরও বড় তোপ দাগলেন তিনি।


শেয়ার করুন
  • 11
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সম্পর্কিত নিবন্ধ

Leave a Comment