কলকাতা 

বেআইনি নির্দেশ মানতে রাজি না হওয়ায় আমার বিরুদ্ধে তোলাবাজির মামলা রুজু করা হয়েছে : ভারতী ঘোষ

শেয়ার করুন
  • 7
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

নিজস্ব প্রতিনিধি : সবং বিধানসভার উপ- নির্বাচনে নিরপেক্ষভাবে কাজ করেছিলাম বলেই বিজেপির ভোট বৃদ্ধি হয়েছিল আর এ কারণে আমার প্রতি তৃণমূল সরকার ক্ষুদ্ধ হয়। ইউটিউব চ্যানেলে এক সাক্ষাৎকারে পশ্চিম মেদিনীপুরের প্রাক্তন পুলিশ সুপার ভারতী ঘোষ একথা বলেছেন।বেআইনী নির্দেশ না মানাতেই তাঁর বিরুদ্ধে তোলাবাজির মামলা রুজু করা হয়েছে বলে অভিযোগ পশ্চিম মেদিনীপুরের প্রাক্তন পুলিশ সুপারের৷ আর সেই কারণেই তাঁর স্বামী এমএভি রাজুকে এখন সিআইডি গ্রেপ্তার করেছে বলে অভিযোগ ভারতীর।

তাঁর এই সাক্ষাৎকারের ভিডিও ক্লিপিং এখন সোস্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়ে গেছে। ইউটিউব চ্যানেলকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে ভারতী বলেন, ‘‘সবং বিধানসভা উপনির্বাচন নিরপেক্ষভাবে হয়েছিল৷ তৃণমূল প্রার্থী ভোটে জিতলেও ২০১৬র তুলনায় ভোট বেড়েছিল বিজেপির ৷ এরপরই রাজ্য পুলিশের তৎকালীন ডিজি বলেন তোমায় পশ্চিম মোদিনীপুরের পুলিশ সুপার থাকতে হবে না ৷’’ সেই সময় রাজ্য পুলিশের ডিজি ছিলেন মুখ্যমন্ত্রী ঘনিষ্ট সুরজিৎ করপুরকায়স্ত৷ ডিজি’র কথা মানতে অস্বীকার করাতেই নাকি এই পরিণতি তাঁর  দাবি ভারতী ঘোষের৷ তাঁকে কি ভোটে পক্ষপাতিত্ব করতে বলা হয়েছিল? প্রাক্তন পুলিশ কর্তার দাবি, ‘‘চাকরির শর্ত অনুসারে অনেক কথাই বলা যাবে না ৷ কিন্তু এক জন আইনের রক্ষক কীভাবে এই বেআইনী নির্দেশ দেন? কি করে নিরপেক্ষ হতে না করেন?’’ মুখ্যমন্ত্রীর বিরুদ্ধে তোপ দেগে ভারতী ঘোষ বলেন, ‘‘হাতের পুল হতে পারিনি ৷ তাই চাকরি ছেড়ে দিয়েছি৷’’


শেয়ার করুন
  • 7
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সম্পর্কিত নিবন্ধ

Leave a Comment