দেশ 

বিস্ফোরক সহ ধৃত হিন্দু জাগ্রত সমিতির সক্রিয় সদস্য, মালেগাঁয়ের মত বিস্ফোরনের পরিকল্পনা ছিল অভিযুক্তদের দাবি পুলিশের

শেয়ার করুন
  • 98
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

নিজস্ব প্রতিনিধি : প্রচুর বিস্ফোরক সহ গ্রেপ্তার হলেন বৈভব রাউত নামে  হিন্দু গোবংশ রক্ষা সমিতির এক সদস্য। বৃহস্পতিবার রাতে পালঘরে নিজের বাড়ি থেকেই তাঁকে গ্রেপ্তার করে মহারাষ্ট্র পুলিশ। উদ্ধার হয় বিপুল বিস্ফোরক। এছাড়া ওইদিন পুনে থেকে আরও দু’জনকে গ্রেপ্তার করে এটিএস। নাম শরৎ কালাসকর ও সুধানওয়া গুন্ধলেকর। ওই দু’জনের কাছ থেকেও প্রচুর বিস্ফোরক উদ্ধার হয়েছে।

পরে পুলিশ বৈভবের দোকানে তল্লাশি চালালে সেখান থেকেও মেলে বিস্ফোরক। উদ্ধার হয় ক্রুড বোমা। কিছু বইও উদ্ধার হয়েছে। বৈভবকে নিজেদের হেপাজতে নিয়ে মুম্বই ফিরেছে মহারাষ্ট্র পুলিশের বিশেষ দল এটিএস। এদিকে, পুনে থেকে গতরাতেই গ্রেপ্তার করা হয় শরৎ ও সুধানওয়াকে। আজ তিনজনকে মুম্বইয়ের একটি আদালতে তোলা হয়। বিচারক ধৃতদের ১৮ অগাস্ট পর্যন্ত পুলিশ হেপাজতের নির্দেশ দিয়েছেন।

ধৃতদের কাছ থেকে ২২টি সামগ্রী উদ্ধার হয়েছে। এরমধ্যে ১৯টি বোমা তৈরির। রয়েছে ২০টি ক্রুড বোমা, ২টি জিলেটিন স্টিক, ৪টি ডিটোনেটর, ২২টি নন ইলেকট্রনিক্স ডিটোনেটর, ৩টি স্পেশিফিক সার্কিট।
পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, মালেগাঁওয়ের মতো বিস্ফোরণের পরিকল্পনা ছিল অভিযুক্তদের। ২০০৮ সালের ২৯ সেপ্টেম্বর মালেগাঁওতে বিস্ফোরণ হয়। মূলত মুসলিম অধ্যুষিত এলাকায় এই বিস্ফোরণে মৃত্যু হয় কমপক্ষে ৬ জনের। আহত হন ১০১ জন।

বৈভবের গ্রেপ্তারের পরই বার্তা পাঠায় হিন্দু জনজাগ্রত সমিতির পক্ষে রাজ্য সম্পাদক সুনীল ঘানভট বলেন, “বৈভব গোরক্ষক। ও হিন্দু গোবংশ রক্ষা সমিতির অ্যাক্টিভ সদস্য। তাদের হয়েই গোরক্ষার পণ নিয়েছে।” তবে, বৈভব  হিন্দু জাগ্রত সমিতির এর কোনও অনুষ্ঠানে বেশ কয়েকমাস যোগ দেননি বলেও জানিয়ে দিয়েছেন সুনীল।


শেয়ার করুন
  • 98
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সম্পর্কিত নিবন্ধ

Leave a Comment