দেশ 

সংশোধনী এনেও তিন তালাক বিল রাজ্যসভায় পাশ করানোর ঝুঁকি নিল না সরকার, অপেক্ষা কী ২০১৯ পর্যন্ত ?

শেয়ার করুন
  • 16
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

নিজস্ব প্রতিনিধি : আজ সংসদের বাদল অধিবেশনের শেষদিনে তিন তালাক বিল রাজ্যসভায় পেশ করা হলেও তা পাশ করাতে পারেনি সরকার। এদিন এনডিএ সরকার তিন তালাক বিলে সংশোধনী এনে তা রাজ্যসভায় পাশ করানো চেষ্টা করেছিল কিন্ত বিরোধীদের কাছ থেকে এই ইস্যুতে খুব বেশি সাহায্য পাওয়া যাবে না ভেবে এই বিল পেশ করা হলে তা পাশ করানো হয়নি। তবেতিন তালাক বিলে একটি সংশোধনী হয়েছে বৃহস্পতিবার। তিন তালাক দেওয়ায় দোষী সাব্যস্ত স্বামীকে জামিন দেওয়ার সংযোজনী আনা হল।

স্ত্রীকে তিন তালাক দেওয়া অসাংবিধানিক এবং এই ধরনের কাজ  করলে স্বামীর তিন বছরের কারাবাসের সাজা রাখা হয়েছিল। এই আইনে জেলের পাশাপাশি জরিমানার শাস্তিও রাখা হয়েছিল। কেন্দ্রের এনডিএ সরকার ২০১৭ সালে এই বিল পাশ করে। সেই বিলেই নতুন  করে সংযোজনী আনা হয়েছে। নতুন সংযোজনী অনুসারে, তিন তালাক দেওয়া স্বামীকে ম্যাজিস্ট্রেট জামিন দিতে পারবেন। তাৎক্ষণিক তালাক ও তালাক-ই-বিদ্দতেক ক্ষেত্রে এই আইন প্রযোজ্য হবে। নির্যাতিতা নারী ম্যাজিস্ট্রেটের কাছে গিয়ে নিজের ও সন্তানের খোরপোশের দাবিও করতে পারবেন। সংশোধনীতে মহিলা ও তাঁর কাছের আত্মীয়দের ক্ষমতা দেওয়া হয়েছে তিন তালাকের ঘটনা ঘটলে পুলিশে অভিযোগ দায়ের করার। পাশাপাশি স্বামীর সঙ্গে পরে মিটমাট হয়ে গেলে সেই অভিযোগ মহিলারা তুলে নিতে পারবেন বলেও সংযোজন করা হয়েছে।বিল পাশ করাতে বিজেপি রাজ্যসভার সকল সদস্যকে হাজির থাকার পরামর্শ দিয়েছিল। কিন্ত শেষ বিল পাশ করানোর ঝুকি কেন্দ্র নেয়নি।

জানা গেছে,  যৌথ অধিবেশন ডেকে এই বিল পাশ করানো যায় কিনা তা নিয়ে সরকার চিন্তাভাবনা করছে। তবে বাদল অধিবেশনের পর তেমন বড় কোন সংসদে অধিবেশন বসার সুযোগ নেই । তাই বিজেপিকে এই বিল পাশ করাতে হলে ২০১৯-র লোকসভা নির্বাচনের পরেই করতে হবে । যদি ক্ষমতায় আসতে পারেন নরেন্দ্র মোদী, তা না হলে এই বিল যে ঠান্ডা ঘরে চলে যাবে তা বলাই বাহুল্যমাত্র।


শেয়ার করুন
  • 16
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সম্পর্কিত নিবন্ধ

Leave a Comment