কলকাতা 

রাষ্ট্র শক্তি প্রয়োগ করে আমার পরিবারকে শেষ করে দিতে চাইছে ওরা সিআইডিকে তোপ প্রাক্তন পুলিশ কর্তা ভারতী ঘোষের

শেয়ার করুন
  • 7
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

নিজস্ব প্রতিনিধি : “ঘাটাল আদালত নির্দেশ দিয়েছিল, রাজুকে আইনজীবীর সামনে জেরা করতে হবে। এই নির্দেশ পাওয়ার পরও ভবানী ভবনে আইনজীবীকে ঢুকতে দেওয়া হয়নি। অনেকক্ষণ অপেক্ষা করার পরও তাঁকে ভিতরে অ্যালাও করা হয়নি। তারপর রাজুর ওষুধ পাঠানো হয়, তাও দেওয়া হয়নি। এমনকী তাঁর ধর্মগ্রন্থও দেওয়া হয়নি। ভিতরে কী চলছে আমি জানি না।” আজ সিআইডি-র বিরুদ্ধে এই বিস্ফোরক অভিযোগ করলেন প্রাক্তন আইপিএস এক সময়ে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ঘনিষ্ট পুলিশ অফিসার ভারতী ঘোষ। তিনি আজ বলেছেন, রাষ্ট্র শক্তি প্রয়োগ করে আমাকে এবং আমার পরিবারকে শেষ করে দিতে চাইছে ওরা।

উল্লেখ্য আয়ের সঙ্গে সঙ্গতিহীন সম্পত্তির অভিযোগে গ্রেপ্তার করা হয়েছে প্রাক্তন পুলিশ কর্তা ভারতী ঘোষের স্বামী এমএভি রাজুকে। কলকাতা হাইকোর্টের ডিভিশন বেঞ্চে আগাম জামিনের আবেদন খারিজ হতেই সিআইডি গ্রেপ্তার করে তাঁকে। গত বুধবার তাঁকে ঘাটাল আদালতে পেশ করা হয়।

চন্দন মাঝি নামে এক ব্যক্তি জানুয়ারি মাসে দাসপুর থানায় প্রতারণার অভিযোগ দায়ের করেন । তিনি অভিযোগ করেন, নোটবন্দির সময় পুরোনো নোটের বদলে সোনা পাইয়ে দেওয়ার নামে প্রতারণা করেন ভারতী ও তাঁর স্বামী। ঘটনার তদন্ত করতে গিয়ে প্রায় ১১ বার ভবানী ভবনে ডেকে জেরা করা হয় রাজুকে। রাজু আগাম জামিনের আবেদন করেন হাইকোর্টে। সেই মামলার শুনানিতে গত মঙ্গলবার আবেদন খারিজ হওয়ার পরই গ্রেপ্তার করা হয় রাজুকে। কিন্তু এখনও পর্যন্ত মূল আসামী ভারতী এবং তাঁর দেহরক্ষীর খোঁজ পায়নি পুলিশ।


শেয়ার করুন
  • 7
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সম্পর্কিত নিবন্ধ

Leave a Comment