দেশ 

সপ্তম বেতন কমিশনের সুপারিশ দ্রূত কার্যকরী করার দাবিতে ধর্মঘটে সামিল বিজেপি শাসিত রাজ্যের সরকারি কর্মচারিরা, চাপের মুখে জানুয়ারি থেকেই বেতন কমিশনের সুপারিশ কার্যকরী করার আশ্বাস সরকারের

শেয়ার করুন
  • 9
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

নিজস্ব প্রতিনিধি : সপ্তম বেতন কমিশন কার্যকরী করতে হবে এই দাবিতে টানা মঙ্গলবার থেকে টানা তিনদিনের ধর্মঘট চালিয়ে যাচ্ছে বিজেপি শাসিত মহারাষ্ট্রের সরকারি কর্মচারিরা। এর ফলে সরকারি কাজকর্ম শিকেয় উঠেছে । ফলে সাধারন মানুষকে ভীষণ অসুবিধায় পড়তে হচ্ছে, যদিও জরুরি পরিষেবাকে এই ধর্মঘটের বাইরে রাখা হয়েছে,তবু সমস্যায় পড়তে হয়েছে জনসাধারনকে। প্রায় ১৭ লক্ষ সরকারি কর্মচারি এই ধর্মঘটে সামিল হয়েছে। তবে প্রায় দেড় লক্ষ গেজেটেড অফিসার এই ধর্মঘটে সামিল হচ্ছেন না৷ কারণ সোমবার রাতে মহারাষ্ট্র সরকার জানিয়ে দেয় ১৪ মাসের বকেয়া ডিএ তাদের দিয়ে দেওয়া হবে৷এরপরই ধর্মঘট থেকে সরে আসেন তারা ।

সরকারি কর্মচারিদের অনড় মনোভাবে চিড় ধরাতে সরকারের পক্ষ থেকে আরও একটি বিবৃতিতে জানানো হয়, ২০১৯-র জানুয়ারি মাস থেকে সপ্তম বেতন কমিশনের সুপারিশ কার্যকর করা হবে৷ অগষ্ট মাস থেকেই বকেয়া ডিএ-র সব দেওয়া হবে৷ যদি কোনো কারণে সপ্তম বেতন কমিশনের সুপারিশ কার্যকর করতে দেরি হয় তাহলে কেন্দ্রীয় সরকারি কর্মচারীদের বেতন কাঠামো অনুযায়ী রাজ্য সরকারের কর্মচারীরা বেতন পাবেন ৷ এরপরও সরকারি কর্মচারীদের একটা বড় অংশকে ধর্মঘট বিমুখ করা যায়নি ৷

সরকারি কর্মচারি সংগঠনের দাবি,  কাজের দিন পাঁচ দিন করতে হবে এবং অবসরের বয়স ৫৮ থেকে বাড়িয়ে ৬০ বছর করতে হবে৷ রাজ্য সরকারি কর্মচারীদের সংগঠনের সভাপতি নীতিন সরদেশমুখ জানিয়েছেন, গ্রূপ সি ও গ্রূপ ডি কর্মীরা এই ধর্মঘটে সামিল হয়েছেন ৷ তিনি জানান, কেন্দ্রীয় সরকারি কর্মচারীরা ২০১৬ সাল থেকে সপ্তম পে কমিশন অনুযায়ী বেতন পাচ্ছে ৷ সাতটি রাজ্য এই সুপারিশ মেনে নিয়েছে ৷ কিন্তু মহারাষ্ট্র সরকার ষষ্ঠ পে কমিশনের অনেক সুপারিশই এখন কার্যকর করেনি৷

 

 

 


শেয়ার করুন
  • 9
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সম্পর্কিত নিবন্ধ

Leave a Comment